Saturday, 26 January 2019

নতুন বছর পড়তে না পড়তেই ১৮জন পেঁয়াজ চাষির আত্মহত্যা বিজেপি শাসিত মহারাষ্ট্রে , হেলদোল নেই সরকারের

ওয়েব ডেস্ক ২৬শে জানুয়ারি ২০১৯:যেই রাজনৈতিক দল , নিজের শাসিত রাজ্যেই মানুষকে ভরসা দিতে পারেনা তারা আবার কি দেশ চালাবে ? এই কথাটাই মানুষের মনে  ঘুরপাক খাচ্ছে  ।সারা দেশে যখন চাষিদের আত্মহত্যার খবর বেড়েই চলেছে , তখনও  কেন্দ্রের কোনো হেলদোল দেখা দেয়নি ।আর এবার তো খোদ বিজেপি শাসিত মহারাষ্ট্রের পেঁয়াজ চাষিরা আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে শুরু করল ।প্রসঙ্গত নাসিকের মালেগাঁও তেহসিলের কান্ধারে গ্রামে গত সপ্তাহে নিজের পেঁয়াজখেতেই বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করেছিলেন ৩৫বছর বয়সী পেঁয়াজচাষি ধ্যানেশ্বর শিবঙ্কর।

দীর্ঘক্ষণ পেঁয়াজখেতেই তাঁর দেহ পড়ে থাকার সেই দৃশ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে ছড়িয়ে পড়েছিল সারা দেশে। তারপর থেকেই কৃষকদের এহেন দুর্গতিতে প্রবল ক্ষোভ জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রতিক্রিয়া দিতে থাকেন লক্ষ লক্ষ মানুষ।কিন্তু ধ্যানেশ্বরই একমাত্র নন, সরকারি গাফিলতি আর অনীহার কারণে মহারাষ্ট্রে পেঁয়াজচাষিদের আত্মহত্যা বেড়েই চলেছে। ফসলের দাম না পেয়ে নতুন বছরের প্রথম কুড়ি দিনেই পরপর ১৮জন পেঁয়াজচাষি আত্মঘাতী হয়েছেন। দুর্দশাগ্রস্ত কৃষকদের পাশে সরকার না থাকায় পরিস্থিতি যে কত ভয়াবহ হয়ে দাঁড়িয়েছে, তা পেঁয়াজচাষিদের পরপর আত্মহত্যার ঘটনাতেই স্পষ্ট।
অথচ দেশের সবচেয়ে বেশি পেঁয়াজ উৎপাদনের রাজ্য মহারাষ্ট্রে কৃষকদের দুর্গতি বছরের পর বছর ধরেই চলছে। সরকারি নীতিতে সার-বীজ-কীটনাশক-ডিজেলের দাম কার্যত কৃষকের নাগালের বাইরে। নানান সূত্র থেকে উচ্চহারের সুদে ধার জোগাড় করে চাষের উপকরণ কিনে অনেক পরিশ্রমে ফসল ফলালেও বাজারে দাম পাচ্ছেন না পেঁয়াজচাষিরা। এবছরে পেঁয়াজের রেকর্ড ফলন হওয়ায় দাম এমনভাবে পড়েছে যে, কোথাও মাত্র এক টাকা, কোথাও বা দেড় টাকা হিসেবে প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম পাচ্ছেন কৃষকরা। বছর বছর এই বিপুল লোকসান সইবার ক্ষমতা হারিয়ে বাধ্য হয়ে আত্মহত্যার পথে পা বাড়াচ্ছেন অসহায় কৃষকরা। কিন্তু সব দেখেও সরকার নীরব। গরিব কৃষকদের বাঁচাতে কোন পদক্ষেপই নিতে দেখা যায়নি রাজ্যের বিজেপি-শিবসেনা সরকারকে।সরকারি হিসেব বলেছে, চলতি মরশুমে দেশে ২২০লক্ষ টন পেঁয়াজের ফলন হয়েছে। সারা বছর এদেশে পেঁয়াজের যা চাহিদা, এই পরিমাণ তার থেকেও ৪০লক্ষ টন বেশি। ফলে সরকারি নিয়ন্ত্রণহীন বাজারে বেপরোয়াভাবে নেমেছে পেঁয়াজের দাম। মহারাষ্ট্রের পেঁয়াজচাষের হালও যেন অনেকটা পশ্চিমবঙ্গের আলুর মতো। যেবার পেঁয়াজের দাম পড়ে যায়, পরেরবার কৃষক চাষ কমিয়ে দিলে দাম ওঠে খানিকটা। তা দেখে কৃষক ফের পেঁয়াজচাষ বাড়ালেই, আবারো দাম নেমে যায় হু হু করে। গত তিরিশ বছর ধরেই এমন চলছে সমানে। বারবার এই ঘটনা দেখেও নেওয়া হয়না কোনও সরকারি পরিকল্পনা, থাকেনা কোনও সরকারি হস্তক্ষেপও! বিদ্যজনেদের একাংশের অভিমত , সমস্যা সমাধান করলে তো ঝান্ডা ধরার লোক ঝুঁজে পাওয়া যাবেনা । তার জন্যই কি কোনো হেলদোল নেই সরকারের ?

No comments:

Post a Comment

loading...