Sunday, 20 January 2019

মমতার ব্রিগেডে যোগ দিয়ে এবার বহিষ্কারের মুখে শত্রুঘন

ওয়েব ডেস্ক ২০শে   জানুয়ারি ২০১৯: বিরোধিতা তিনি অনেক দিন ধরেই করছিলেন কিন্তু কোনো দিন সরাসরি নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে দুর্নীতি নিয়ে আক্রমণ করেননি, যা গতকাল করে শিরোনামে চলে এসেছেন বিহারের শত্রুঘন সিনহা ।এবার শাস্তি পাওয়ার পালা বলেই মনে করছেন অনেক বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা , অন্তত সূত্র অনুসারে তাই জানা যাচ্ছে ।প্রসঙ্গত তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা ব্যানার্জির ডাকে কলকাতার ব্রিগেড সমাবেশে যোগ দিয়েছিলেন বিজেপি নেতা শত্রুঘ্ন সিন্‌হা। মঞ্চে বলতে উঠে মোদির রাফাল দুর্নীতি নিয়ে সরব হয়েছিলেন তিনি।

এই কুৎসা আর সহ্য হয়নি বিজেপির। তাই শত্রুঘ্ন সিনহার বিরুদ্ধে এবার শাস্তি মূলক ব্যবস্থা নেওয়ার কথা ভাবছে বিজেপি। সূত্রের খবর দলের একাংশ শত্রুঘ্নর এই সরকার বিরোধী বক্তব্যে অত্যন্ত অসন্তুষ্ট হয়েছে। পার্টি মনে করছে শত্রুঘ্ন মোদির নামে অকারণে কুৎসা রটাচ্ছেন। এই নিয়ে দলের অন্দরে আলোচনা চলছে। অমিত শাহ সক্রিয় ভাবে কাজ শুরু করলেই বিষয়টি নিয়ে তাঁরা বৈঠকে বসবেন বলে মনে করা হচ্ছে। শোনা যাচ্ছে বিরোধী শিবিরের মঞ্চে দাঁড়িয়ে দলবিরোধী কথা বলায় শত্রুঘ্ন সিন্‌হাকে শোকজ করতে পারেন মোদি। অর্থাৎ বহিষ্কারের যাবতীয় প্রস্তুতি নেওয়া হয়ে গিয়েছে। শুধু অমিত শাহের অপেক্ষা। তিনি সিলমোহর দিলেই কোপ পড়বে শত্রুঘ্নর। তৃণমূলের ব্রিগেডে যোগ দিয়ে মহাজোটে সামিল হওয়ার বার্তাই দিয়েছেন বিজেপি সাংসদ শত্রুঘ্ন সিন্‌হা। ৭২ বছরের প্রবীণ এই বিজেপি সাংসদ পাটনার সাহিব থেকে নির্বাচিত হয়েছিলেন।এবার অমিত শাহ সুস্থ হয়ে আসার পর কি সিদ্ধান্ত নেন এখন এটাই দেখার।  

No comments:

Post a Comment

loading...