Friday, 4 January 2019

হোটেল রুমে যুবতীকে গণধর্ষণ , যোগীর পুলিশের কানে আর্তনাদও পৌঁছোলনা

ওয়েব ডেস্ক ৪ঠা  জানুয়ারি ২০১৯: যোগী রাজ্যে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেই চলেছে , এর কোনো শেষ আছে বলে মনে হচ্ছেনা । আর ভাবছেন পুলিশ কি করছে ? পুলিশ মুখ্যমন্ত্রীর ইচ্ছাতে গরু বাঁচাতে ব্যস্ত ।এই হল আজকের হাল উত্তরপ্রদেশের । এবার হোটেলের রুমে এক তরুণী গণ ধর্ষিতা হল তাও পুলিশের কান অবধি তার আর্তনাদ পৌঁছোলনা ।প্রসঙ্গত ফেসবুকে বন্ধুত্ব। তারপর সেখান থেকে ঘনিষ্ঠতা। তারই পরিণাম ধর্ষণ। ২৩ বছরের এক তরুণীকে হোটেলের এক ঘরে তাঁর ফেসবুকের বন্ধু ও তার ভাইরা মিলে ধর্ষণ করে। পরে অভিযুক্তদের মধ্যে এক যুবক আক্রান্ত তরুণীকে বিয়ে করার জন্য চাপ দেয়। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের শামলি জেলায়।

ওই তরুণীর অভিযোগ অনুযায়ী, ফেসবুকে তাঁর সঙ্গে সোনু বলে এক যুবকের পরিচয় হয়। বন্ধুত্ব ক্রমে পরিণত হয় ঘনিষ্ঠতায়। ওই যুবক তরুণীর সঙ্গে দেখা করতে চায়। তরুণী যুবকের কথামতো শামলির একটি হোটেলে আসেন। তাঁকে একটি হোটেলের রুমে ডেকে পাঠায় ওই যুবক। তরুণী গিয়ে দেখে হোটেলের ঘরে সোনু ছাড়াও আর বেশ কয়েকজন রয়েছে। এরপর অভিযুক্ত সোনু ও তার ভায়েরা মিলে হোটেলেই তাঁকে ধর্ষণ করে। এরপর অভিযুক্তরা ওই ধর্ষণের ভিডিও করে তরুণীকে ব্ল্যাকমেল করে এবং সোনুকে বিয়ে করার জন্য চাপ দেওয়া হয়। ধর্ষিতা তরুণীর বয়ানের ওপর ভিত্তি করে সোনু সহ তার পরিবারের ১০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তরুণীকে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে হাসপাতালে।  আশ্চর্যের বিষয়, এত সব ঘটনা ঘটল আর পুলিশ তাদের সোর্স মারফত কোনো খবরই পেলনা ? ধর্ষিতা যতক্ষননা পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করল পুলিশ অন্ধকারেই ছিল ।এটাই কি হওয়া উচিত ছিল ? এটাই কি প্রমান করেনা উত্তরপ্রদেশ এখন নৈরাজ্যে পরিণত ।

No comments:

Post a Comment

loading...