Saturday, 2 February 2019

মেদিনীপুরের অপদার্থতা ফিরে এলো ঠাকুরনগরে, বিজেপি সভা মানেই এখন বিসৃঙ্খলা

ওয়েব ডেস্ক ২রা  ফেব্রুয়ারী ২০১৯:বিজেপির সভা মানেই এখন বিশৃঙ্খলা। আগেও যখন নরেন্দ্র মোদী এসেছিলেন তখন দেখা গিয়েছিল বিসৃঙ্খলা , যার জেরে স্টেজটাই ভেঙে পরে গিয়েছিল আহত হয়েছিল অনেকেই , এবার তার অন্যথা হলনা ।মেদিনীপুরের সভার স্মৃতিই এবার ফিরে এলো ঠাকুরনগরে ।মেদিনীপুরে আহত হয়েছিল ৪৪ জন যা নিয়ে বিতর্কও সৃষ্টি হয়েছিল।
এদিনও ঠাকুরনগরে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য চলাকালীন একইরকম অবস্থা তৈরি হয়। বিশৃঙ্খলা দেখা দেয় সভার মধ্যে।প্রধানমন্ত্রীকে সামনে থেকে দেখতে হুড়োহুড়ি পড়ে যায় বিজেপি কর্মী–সমর্থকদের মধ্যে। মোদির বক্তব্য শুরু হওয়ার সঙ্গে মঞ্চের বাঁদিকে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়। অনেকেই দাঁড়িয়ে পড়েন মোদির বক্তব্য শোনার জন্য। বসার চেয়ার ছুঁড়ে সামনের দিকে ফেলতে শুরু করেন। এরপরই সেটি বড় আকার ধারণ করে। অনেকেই ভয়ে সামনের দিকে এগিয়ে আসেন। সামনে থাকা মহিলা–শিশুরা প্রাণভয়ে ব্যারিকেড টপকে সামনে চলে আসেন। অনেকেই ব্যারিকেড টপকাতে থাকেন।পরিস্থিতি খারাপ হতে দেখে দু’‌বার বক্তব্য থামাতেও বাধ্য হন। জানা গিয়েছে, ঘটনায় বেশ কয়েকজন বিজেপি সমর্থকও আহত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন বেশ কিছু মহিলাও। শেষপর্যন্ত কোনওরকমে বক্তব্য শেষ করেই সভাস্থল থেকে বেরিয়ে যান প্রধানমন্ত্রী। আহতদের শুশ্রুষার ব্যবস্থা করা হয়েছে।পরে দুর্গাপুরের জনসভায় গিয়ে ক্ষমাও চেয়ে নেন মোদি। বলেন, 'ঠাকুরনগরের সভায় যাঁরা আহত হয়েছেন তাঁদের কাছে আমি ক্ষমা চাইছি। তাঁদের প্রতি আমার সমবেদনা রয়েছে।'  গতবার যেমন আহতদের বিজেপি কর্মীরা চিনতেই পারেনি এবার ভোট ব্যাংকে থাবা বসাবার লক্ষ্যে আহতদের দেখে চোখ উল্টে ফেলেনি বিজেপি কর্মকর্তারা ।       ‌

No comments:

Post a Comment

loading...