Sunday, 3 February 2019

ব্রিগেডের দিন সকালেই ভোল বদল কানহাইয়া কুমারের , তিনি আসছেনা ।ব্রিগেড সাফল্য ওখানেই শেষ বামপন্থীদের

ওয়েব ডেস্ক ৩রা  ফেব্রুয়ারী ২০১৯: তিন বছর পর ব্রিগেডে করছে সিপিএম , তাদের আশা ছিল  বিশাল কিছু বলার মতো না হলেও ভদ্রস্থ একটা সাফল্য আসবে । তা তো হলোই না উল্টে সকালে  মাথায় বাজ  পড়ার মতো খবর বয়ে এলো  বামপন্থী শিবিরে । যার বক্তিতাকে মূলধন করে আলিমুদ্দিন ব্রিগেড সফল করার অঙ্ক কষেছিল  ,সেই প্রাক্তন জে এন ইউ  নেতা কানহাইয়া  কুমার কোনো এক অজ্ঞাত কারণে অনুপস্থিত , যা আলিমুদ্দিনের কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলেছিল বৈকি ।কিন্তু সেখান থেকে উঠে আশা আর হলনা ।


প্রসঙ্গত বামেদের ব্রিগেড সমাবেশের অন্যতম সেরা আকর্ষণই ছিলেন জেএনইউ-এর প্রাক্তন ছাত্রনেতা কানহাইয়া কুমার। সিপিএমের রাজ্যস্তরের নেতারা এবং অন্য বাম নেতারা ব্রিগেডে বক্তব্য রাখলেও আগত কর্মীদের মধ্যে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুই ছিলেন এই তরুণ নেতা। এমনিতে বামেদের ব্রিগেডে সাধারণত তরুণ নেতারা বলার সুযোগ পান না। পোড়খাওয়া নেতাদেরই বলার সুযোগ দেওয়া হয়। কিন্তু এবারে কানহাইয়াকেই মূল আকর্ষণ হিসেবে তুলে ধরতে চাইছিল বাম নেতৃত্ব। নেতাকর্মীদের আশা ছিল তরুণ এই নেতা যুবসমাজকে আকৃষ্ট করতে পারবেন। সেই উদ্দেশ্যে গত প্রায় একমাস ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচারও করা হয়েছিল। কিন্তু সমাবেশের দিন সকালেই দুঃসংবাদ পেলেন বাম কর্মীরা। ব্রিগেডে আসছেন না কানহাইয়া। এতেই চিন্তার ভাঁজ নেতাদের কপালে। জ্যোতিবাবুর মতো তারকা বক্তা নেই, বুদ্ধবাবুর ব্রিগেডে আসাও অনিশ্চিত, শেষ মুহূর্তে যদি তিনি আসেনও, তাতেও বক্তব্য রাখবেন কিনা তা নিশ্চিত নয়। তাই ব্রিগেডের মঞ্চ মাতানোর জন্য বাজি রাখা হয়েছিল কানহাইয়ার উপরেই।তার না আসাতে ব্রিগেডের ব্যর্থতা যেন আরো প্রকট পেল বলেই মনে হচ্ছে ।

No comments:

Post a Comment

loading...