Wednesday, 27 February 2019

বিতর্কিত মন্তব্য করে নিজের নিম্নরুচির প্রমান দিলেন বিজেপির সায়ন্তন বসু

ওয়েব ডেস্ক ২৭শে  ফেব্রুয়ারী ২০১৯:দিলীপ ঘোষের ছোঁয়া এবার বিজেপির সায়ন্তন বসুর লেগে গেলো বলে মনে হচ্ছে ।এমনিতেই বিতর্কিত মন্তব্যে দিলীপ ঘোষ শীর্ষে এবার সায়ন্তন বসু তার জায়গা নেওয়ার প্রচেষ্টায় আছেন কিনা খুলে না বললেও হাব ভাবে সেরকমই মনে হচ্ছে । প্রসঙ্গত তিনি বলেন ভোট আসছে, শুধু খৈনি দোলানো আর মাঠে প্যারেড করবো। মঙ্গলবার বীরভূমে মহম্মদবাজার থানার কুলিয়া গ্রামে এসে পুলিশ প্রশাসনের উদ্দেশ্যে এমনই মন্তব্য করলেন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু।এছাড়াও তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেও কটাক্ষ করেন।

মঙ্গলবার বীরভূমের মহম্মদবাজার থানার কুলিয়া গ্রামে কমল জ্যোতি অভিযান অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বীরভূম জেলা বিজেপি।এদিন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির সাধারণ সম্পাদক(রাজ্য) সায়ন্তন বসু,বীরভূম জেলা সভাপতি রামকৃষ্ণ রায়,বীরভূম জেলার সাধারণ সম্পাদক কালসোনা মণ্ডলসহ নেতৃত্ববৃন্দ।এদিন অনুষ্ঠানে সায়ন্তন বাবু প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করেন।তারপরই শাসক দলের উদ্দেশ্যে আক্রমন শানাতে থাকেন।এমনকি তিনি পুলিশ প্রশাসনের উদ্দেশ্যেও বেশকিছু বিতর্কিত মন্তব্য করেন।তিনি বলেন, “আমি খবর পেলাম যে বিজেপি নেতাদের, বিজেপি কর্মকর্তাদের এবং কর্মীদের পুলিশ কেস দিচ্ছে,গতকাল অব্দি ১০জনের নামে কেস দিয়েছে।আমি পুলিশ প্রশাসনের কর্মচারীদের বলেছি বেশী বাড়াবাড়ি করবেন না, নিবার্চন আসছে শুধুমাত্র খয়নি দোলানো এবং এই মাঠে প্যারেড করানোর কাজ করবো,বাকি কাজ বিএসএফ আর সিআরপিএফ করবে।”তিনি শুধু পুলিশ প্রশাসন নয়।রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর সাথে তুলনা করে বলেন, “ওনার কথা শুনে মনে হয় উনি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বা মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন।ওনার কথা আর পাকিস্তানের ইমরান খানের কথা কোথাও যেন মিলে যায়।ওখানে ইমরান খান বলছে আমাদের প্রমান দাও,আমাদের রাজ্য সরকারের অনেকে বলছেন পাকিস্তান দোষী জানলো কি করে ভারত।” 

No comments:

Post a Comment

loading...