Friday, 1 February 2019

কেন্দ্রীয় সরকারের বাজেটকে জুমলা আখ্যা দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

ওয়েব ডেস্ক ১লা ফেব্রুয়ারী ২০১৯:লোকসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে অরুন জেটলির পরিবর্তে পীযুষ গোয়েলের করা এই বাজেটকে স্রেফ জুমলা বলে আখ্যা দিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ।সরকার থেকে চলে যাওয়ার  আগে , বিজেপির তরফ থেকে একটা শেষ চেষ্টা করা হয়েছে  বলে মনে করছেন রাজনৈতিক ব্যক্তিদের একাংশ । কিন্তু অনেক গুলো ব্যাপার বাংলার থেকে পুরো কপি করা সেটা বোঝাই যাচ্ছে । এটাকে স্বয়ং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্রের উপস্তিতিতে, মিথ্যে আখ্যা দেন ।
 তিনি বলেন ‘‌এই বাজেটের কোনও ভ্যালু নেই। নির্বাচনের আগে শুধু চমক দেওয়ার চেষ্টা। এটা শুধু দেখনদারির বাজেট। কাজের কিছু নেই। জনগণের সঙ্গে স্রেফ প্রতারণা করা হচ্ছে। এত টাকা আসবে কোথা থেকে?‌ আগের চার বছরে কেন এরকম বাজেট করা হয়নি?‌ তখন কেন কৃষকদের কথা ভাবা হয়নি?‌ দেশের আর্থিক অবস্থা কেউ জানে না। নোট বাতিল, জিএসটি–র পর দেশে আর্থিক জরুরি অবস্থা ছিল। এখনও দেশে অর্থনৈতিক জরুরি অবস্থার পরিস্থিতি রয়েছে। সাধারণ মানুষকে ধোঁকা দেওয়ার জন্য এই বাজেট তৈরি হয়েছে।’‌ এরপরই তিনি কেন্দ্রের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রীয় পরিকাঠামো নষ্ট করার অভিযোগ তোলেন। বলেন, ‘‌যে যে প্রকল্পের কথা ঘোষণা করা হয়েছে, তাঁর মধ্যে অধিকাংশই আমরা আগে করেছি। ওরা শুধু ছবি পাঠিয়ে বলছে, ওই প্রকল্পগুলি কেন্দ্র করেছে। স্বাস্থ্যসাথী থেকে শুরু করে কিষানবন্ধু প্রকল্প, কৃষকদের জন্য ফসলবীমা–সব আমাদের সরকার করেছে। ওরা কোথাও কোনও উন্নয়ন করেনি। শুধু জিনিসপত্রের দাম বাড়িয়েছে। ১০০ দিনের কাজেও মানুষ টাকা পাচ্ছে না। শুধু গত এক বছরে দু’‌কোটি মানুষ বেকার হয়েছে। আরবিআইয়ের মতো সংস্থাকে ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে। কেন্দ্র যুক্তরাষ্ট্রীয় পরিকাঠামোকে পুরো ধ্বংস করছে। প্রধানমন্ত্রী শুধু ক্ষমতার অপব্যবহার করছে। এই বাজেট আসলে পুরোটাই মিথ্যে। কেউ এই মিথ্যে কথায় কান দেবেন না। রাজ্য থেকে একাধিক কর নিচ্ছে, বদলে রাজ্যের প্রকল্পগুলিকে নিজেদের বলে চালাচ্ছে। এই সরকার আর বেশিদিন টিকবে না।’‌ এখন দেখার বিষয় এই বাজেট বিজেপির কাছে কতটা লাভজনক হয় লোকসভা নির্বাচনের নিরিখে ।

No comments:

Post a Comment

loading...