Thursday, 28 February 2019

পাকিস্তানী মহিলাদের বার্তা যুদ্ধ নয় তারা শান্তিতে বিশ্বাসী , তাহলে হাফিজ সয়ীদ কে কেন জায়গা দিচ্ছে নিজেদের দেশে ?

ওয়েব ডেস্ক ২৮শে  ফেব্রুয়ারী ২০১৯:যুদ্ধ  কোনো মানুষই চায়না , কিন্তু যুদ্ধের মতো পরিস্তিতি আসুক সেটা ঠেকাতে গেলে নিজের আত্ম সমালোচনাটাও যে করতে হয় সেটা কি পাকিস্তানের জনগণ ভুলে গেছে ? না হলে কি করে তারা হাফিজ শহীদের মতো একজন আতঙ্কবাদীকে নিজেরদের দেশে ঘুরেবেড়াতে দেন ? এই প্রশ্নটা যেইসব পাকিস্তানী মায়েরা বোনেরা আজ শান্তির জন্য সওয়াল করছে তাদের সরকারকে কপিরা উচিত ।


                                                                                        ফাতিমা ভুট্টো
প্রসঙ্গত বুধবার থেকেই টুইটারে ট্রেন্ড করছে হ্যাশট্যাগ ‘‌সে নো টু ওয়ার’‌। দু’‌দেশের মানুষের একটা বড় অংশ বারবার আওয়াজ তুলছেন যুদ্ধের বিরুদ্ধে। সেই আওয়াজেই সুর মিলিয়ে পাকিস্তানরে তরফে খোলামেলা আবেদন করলেন সাধারণ মহিলারা। ফেসবুকে তাঁরা হাতে পোস্টার নিয়ে দাঁড়ালেন, তাতে লেখা, ‘‌সে নো টু ওয়ার’‌। তারপর কথা বলতে শুরু করলেন এক মহিলা। বললেন, ‘লড়াই করার কোনও ইচ্ছা বা লড়াইয়ের প্রতি সমর্থন আমাদের তরফে নেই। বরং আমরা চাই, যাতে যুদ্ধ না হয়। তাই আমরা পাকিস্তান থেকে ভারতের মা, বোন, মায়েদের বলতে চাইছি, আসুন‌, আমরা সবাই মিলে যুদ্ধের বিরোধিতায় পথে নামি। আমরা সবাই বলি, আর প্রাণহানি চাই না।’‌ এর পাশাপাশি, জোরের সঙ্গে তাঁরা জানিয়ে দেন, তাঁরা যুদ্ধ চান না, শান্তি চান না। লড়াই চান না, নিরাপত্তা চান।ভারতেও চিত্রটা আলাদা কিছু না, বরং অনেকেই এই এক সুরে গান গাইছেন। অনেকেই বলছেন, যুদ্ধ করে কোনও সমাধান হতে পারে না। সেই বিষয়ে একাধিক মিম, ভিডিও বা নানা কথা ঘুরে বেড়াচ্ছে ফেসবুক ও সোশ্যাল মিডিয়ায়। সকলেই একবাক্যে বলতে চাইছেন, যুদ্ধ নয়, তাঁরা শান্তি চান। শান্তি পেতে গেলে হাফিজ শহীদের মতো জঙ্গি নেতাদের শাস্তি দিতে হবে ।

No comments:

Post a Comment

loading...