Wednesday, 20 March 2019

লোকসভা নির্বাচনের আগেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়কে শো কোজ নির্বাচন কমিশনের

ওয়েব ডেস্ক  ২০শে  মার্চ ২০১৯: ভোট শুরুর আগেই নির্বাচন কমিশনের রোষের মুখে পড়লেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় । এরকম একটা ঘটনা যে ঘটতে পারে তা দুঃস্বপ্নেও ভাবেননি বাবুল ।প্রসঙ্গত সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় সাংসদ এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর গলায় ও সুরে যে প্রচারমুখী গান ছড়িয়ে গেছে, তার প্রচার আপাতত বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। মিডিয়া সার্টিফিকেশন মনিটরিং কমিটির অনুমোদন ছাড়াই এই গান প্রকাশ করায় কমিশনের পক্ষ থেকে শোকজও করা হয়েছে বাবুল সুপ্রিয়কে। তাঁকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়েছে।
পাশাপাশি, এই গানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি এবং বাংলাকে অপমান করা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলে আসানসোল দক্ষিণ থানায় তঁার বিরুদ্ধে এফআইআর করেছেন তৃণমূলের পশ্চিম বর্ধমান জেলা স্টুডেন্টস লাইব্রেরি কোঅর্ডিনেশন কমিটির সাধারণ সম্পাদক গৌরব গুপ্তা। তবে আসালসোলের মেয়র ও তৃণমূল নেতা জিতেন্দ্র তেওয়ারি বলেন, ‘‌একটি ছাত্র সংগঠন অভিযোগটা করেছে। আমাদের দলের পক্ষ থেকে এখনও কোনও মামলার কথা ভাবা হয়নি। যে চলে যাওয়ার পথে, তাকে আমরা ধাওয়া করি না।’মনিটরিং কমিটির অনুমোদন ছাড়াই গানটি প্রচার করায় মঙ্গলবার বাবুল সুপ্রিয়র বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানিয়েছেন অতিরিক্ত মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক সঞ্জয় বসু। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘‌আমাদের মিডিয়া ওয়াচ সেকশন বিষয়টি লক্ষ্য করে। এর পর তৃণমূল থেকেও অভিযোগ জানানো হয়। এই ধরনের গান করতে গেলে মিডিয়া সার্টিফিকেশন মনিটরিং কমিটির সার্টিফিকেট নিতে হয়। তিনি তা নেননি। তাই তাঁকে শোকজ করা হয়েছে। ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়েছে। গানের বিষয় নিয়ে অভিযোগ এসেছে, তিনি নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছেন। বাবুল সুপ্রিয়র এই গান এখন বন্ধ থাকবে।স্বাভাবিক ভাবেই বাবুল এতে ব্যাক ফুটে ।  তিনি কি কারণ দর্শায় এখন সেটাই দেখার ।

No comments:

Post a Comment

loading...