Wednesday, 27 March 2019

পায়ে নয় , বুকে গুলি করার নিদান শোনালেন বিজেপির সায়ন্তন বসু , ছি: , পড়ুন

ওয়েব ডেস্ক  ২৭শে  মার্চ ২০১৯: ভারতীয় গণতন্ত্রে বাক স্বাধীনতা আছে । তার মানে আইন নিজের হাতে তুলে নেওয়ার জন্য জনগণকে প্ররোচনা মূলক বক্তিতা দেওয়ার অধিকার বিজেপি প্রার্থী সায়ন্তন বসুকে কেউ দেয়নি । এটা যে কতটা আইনত অপরাধ সেটা সায়ন্তন বাবুর মতো একজন দায়িত্বশীল রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের জানা উচিত ছিল । হয়তো তিনি ভেবেছিলেন বিপ্লব কুমার কুমার দেব যখন ঘন ঘন তার সাধারণ জ্ঞানের মাধ্যমে এবং অবশ্যই বেফাঁস মন্তব্যে লোক হাসান তাহলে প্ররোচনা মূলক বক্তিতা আর এমন কি !প্রসঙ্গত  মঙ্গলবার বসিরহাটের সভায় সায়ন্তন হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, ভোটের দিন বুথ দখল করার চেষ্টা হলে, ‘‘পা লক্ষ্য করে নয়, বুক লক্ষ্য করে গুলি করা হবে।’’ পাশাপাশি পুলিশকে নিশানা করে বিজেপি প্রার্থীর হুঙ্কার, ‘‘ভোটের দিন পুলিশকে থানার মধ্যে আটকে রেখে দেব। ভোটে পুলিশ প্যারেড করবে।’’
মঙ্গলবার বসিরহাটের এক সভায় সায়ন্তন বলেন, ‘‘নির্বাচনের দিন বুথ যদি দখল করতে আসেন, সিআরপিএফকে বলে দেব, গুলি যেন বুকে লক্ষ্য করে যায়, পা লক্ষ্য করে না যায়।’’ এরপরই সায়ন্তনের হুঁশিয়ারি, ‘‘এমন বাড়াবাড়ি দেখানো হবে, দৌড়নো তো দূরের কথা, এখন তো যাবে দৌড়ে, আর ফিরবে খাটিয়াতে করে, সেই ব্যবস্থা আমরা করে দেব। বসিরহাটে ভাল ভাল ডাব পাওয়া যায়। ডাব কাটার দা গুলো খুব ভাল হয়। এবার রাস্তায় দা নিয়ে বেরোবে মহিলারা। দু’চারটেকে দেখতে পারলেই একদম সাবার করে দিয়ে আসবে।’’এদিন পুলিশকেও হুঙ্কার দিয়েছেন বসিরহাটের বিজেপি প্রার্থী। পুলিশের উদ্দেশে সায়ন্তন বলেন, ‘‘পুলিশ তৃণমূলের হয়ে কাজ করছে। পুলিশকে থানার মধ্যেই আটকে রেখে দেব। নিশ্চিন্তে থাকুন, ভোটে পুলিশ প্যারেড করবে। নির্বাচন ক্ষেত্র জুড়ে বিএসএফ, সিআরপিএফ থাকবে।’’ বিজেপি নেতার আরও মন্তব্য, ‘‘দিল্লির নেতাদের কথা দিয়েছে, যারা বেচাল করবে, তাদের নামের তালিকা তুলে দেব। কেন্দ্রীয় বাহিনী এসে বেচালদের সেই চাল ঠান্ডা করে দেবে।’’ সায়ন্তন বাবুর এহেন মন্তব্যে , অ-বিজেপি রাজনৈতিক দলগুলি এক যোগে নিন্দার বন্যা বইয়ে দিয়েছে । তাদের একটাই বক্তব্য , বাংলার সংস্কৃতি এরকম নয়, এরকম কুরুচিকর ভাষা আগে কখনো হয়নি যেটা বিজেপির বাড়বাড়ন্তে হচ্ছে , এই বাংলায় ।

No comments:

Post a Comment

loading...