Saturday, 23 March 2019

জাভেদ আখতারের দাবি তিনি মোদীজির বায়োপিকের জন্য গান লেখেননি , তা সত্ত্বেও গীতিকার হিসেবে প্রচার করা হচ্ছে তার নাম

ওয়েব ডেস্ক  ২৩শে  মার্চ ২০১৯:নিজেদের দলের লোক না হলেও তবুও জোর করে নিজেদের লোক হিসেবে মানুষের কাছে দেখাবে , বঙ্গ রাজনীতিতে কমিউনিস্ট শাসনেকালে যা করত বামপন্থীরা তাই এবার জাতীয় রাজনীতি করে বেড়াচ্ছে বিজেপি । যিনি গানই লেখেননি নরেন্দ্র মোদীর বায়োপিকের জন্য তার নাম জোর জবরদস্তি ঢোকানো হয়েছে নিজেদের লোক প্রমান করার জন্য , এবং সংখ্যালঘু বলে নিজেদের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করার জন্য । 

প্রসঙ্গত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বায়োপিকের সঙ্গে বেশ কিছু বড় মাপের বলিউড অভিনেতার নাম ইতিমধ্যেই জুড়ে গিয়েছে। সেই তালিকায় রয়েছেন বিবেক ওবেরয় এবং বোমান ইরানিও। বায়োপিকে ট্রেলার মুক্তি পেয়েছে বুধবার। কিন্তু তারপরেই তৈরি হয় বিতর্ক। ট্রেলারে জাভেদ আখতারের নাম গীতিকার হিসেবে লেখা হয়েছে। যদিও জাভেদ আখতার বলেছেন, তিনি পি এম নরেন্দ্র মোদী সিনেমার একটিও গান লেখেননি। জাভেদ আখতার টুইটারে একথা জানানোর পরেই তা নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হয়। বিষয়টি ট্রেন্ডিং তালিকার শীর্ষে চলে আসে।বায়োপিক এর যে অংশে তার নাম দেখানো হচ্ছে সেটি শেয়ার করে জাভেদ আখতার লিখেছেন, নিজের নাম দেখে তিনি ‘শকড' হয়ে গিয়েছেন। পি এম নরেন্দ্র মোদী সিনেমার ট্রেলারের শেষে গীতিকার হিসেবে জাভেদ আখতারের নামের পাশাপাশি, সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ফিল্ম সার্টিফিকেশনের প্রধান এবং খ্যাতনামা গীতিকার প্রসুন যোশী, সমীর ও অন্যদেরও নাম রয়েছে।জাভেদ আখতারের টুইটটি ১৫ হাজারের বেশি লাইক পেয়েছে এবং ৫৬০০ বার পুনর্টুইট করা হয়েছে। তবে চিত্রনির্মাতাদের তরফে এখনও এই বিতর্কে কোনও মন্তব্য করা হয়নি।যে লোকটি অসহিষ্ণুতার ব্যাপারে সোচ্চার , যিনি মোদী সরকারের সমালোচনা করতে একমুহূর্ত ভাবেন না , তার নাম গীতিকার হিসেবে ঢোকানো মানে একটাই হয় , নিজেদের বিজেপির নিজেদের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করার । কিন্তু এটা করতে হচ্ছে কেন ? সত্যিই যদি বিজেপি ভালো কাজ করে থাকে তাহলে এসবের দরকার আছে কি ?

No comments:

Post a Comment

loading...