Thursday, 28 March 2019

রাহুল কি জানেননা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কি ভাবে সিপিএমের অপশাসন বন্ধ করেছিলেন ? প্রমান করলেন তিনি পাপ্পুই

ওয়েব ডেস্ক ২৮ শে  মার্চ ২০১৯:রাহুল গান্ধীর এখনো অনেক দূর পৌঁছতে হবে "পাপ্পু " তকমা ঝেড়ে ফেলার জন্য ।না হলে যেরকম বিজেপি তাকে পাপ্পু বলে ডেকে আসছে সেরকমই সারা জীবন ডাকতে থাকবে । বোঝাই  যাচ্ছে রাহুল গান্ধীর বয়স অল্প , না হলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাজের সমালোচনা তিনি  করেন ! করবার আগে তার শত বার ভাববার দরকার ছিল যা তিনি করেননি ।আর এটাই তার মস্ত বড় ভুল ।
প্রসঙ্গত বুধবার তৃণমূল কংগ্রেসের ইস্তেহার প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানেই তাঁকে রাহুল গান্ধী সম্বন্ধে প্রশ্ন করা হয়। কারণ, কয়েকদিন আগে মালদহের চাঁচলে সভা করতে আসেন রাহুল। সেখানে তিনি তৃণমূল কংগ্রেসের বিভিন্ন নীতির সমালোচনা করেছিলেন।
সেই প্রসঙ্গেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতিক্রিয়া চাওয়া হয়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ''ছোট্ট ছেলে। একটু বলেছে। বলুক না। তাই বলে আমাকেও বলতে হবে।''প্রসঙ্গত, ওই সভা থেকে রাহুল গান্ধী কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়া মৌসম নূরের সমালোচনা করেন। মৌসমকে বিশ্বাঘাতক বলে তাঁকে ভোট না দেওয়ার জন্য উত্তর মালদহের ভোটারদের কাছে আবেদন করেছিলেন। রাহুল সেদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমালোচনা করেছিলেন।কিন্তু পশ্চিমবঙ্গে রাহুল গান্ধীর বক্তব্যের যে কোনও গুরুত্ব নেই। রাহুলকে ছোট্ট ছেলে বলে মন্তব্য করে সেকথাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বোঝাতে পেয়েছেন বলে রাজনৈতিক মহলের মত।   রাহুল গান্ধীর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ব্যাপারে  সমালোচনা করার আগে একবার ভাবা উচিত ছিল , বিগত কয়েক জগ ধরে যেখানে কংগ্রেস সিপিএমকে বাংলার থেকে সরাতে পারেনি সেখানে মমতা একার ক্ষমতায় সিপিএমকে বাংলার থেকে বিতাড়িত করেছে । যেটা একমাত্র মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পক্ষেই সম্ভব ছিল অন্য কারোর পক্ষে নয় ।

No comments:

Post a Comment

loading...