Sunday, 10 March 2019

সাত দফার লোকসভা নির্বাচন , ফল প্রকাশ ৩ মে

ওয়েব ডেস্ক ১০ই  মার্চ ২০১৯:  মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুনীল অরোরা জ্ঞান ভবনের সাংবাদিক বৈঠকে জানিয়ে দিলেন সারা দেশে ৫৪৩ আসনের লোকসভা নির্বাচন মত সাত দফায় হবে  ।
বর্তমান লোকসভার মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে চলতি বছরের ৩ জুন। সারা দেশে লোকসভা নির্বাচনের সঙ্গে বিধানসভা নির্বাচন হবে অন্ধ্রপ্রদেশ, ওড়িশা, সিকিম এবং অরুণাচল প্রদেশ— এই চারটি রাজ্যেও।এই নির্ঘণ্ট ঘোষণার সঙ্গেই সারা দেশে চালু হয়ে যাচ্ছে নির্বাচনী আচরণ বিধি। অর্থাৎ, নতুন কোনও প্রকল্পের ঘোষণা করতে পারবে না কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারগুলি।
প্রথম দফার ভোট হবে ১১ এপ্রিল, দ্বিতীয় দফার ভোট ১৮ এপ্রিল, তৃতীয় দফার ভোট ২৩ এপ্রিল, চতুর্থ দফার ভোট ২৯ এপ্রিল, পঞ্চম দফার ভোট ৬ মে, ষষ্ঠ দফার ভোট ১২ মে এবং সপ্তম দফার ভোটগ্রহণ হবে ১৯ মে। সাত দফায় ভোটগ্রহণের পর ভোটগণনা হবে ২৩ মে।
মোট সাতটি দফায় হবে লোকসভা নির্বাচন।
গুগল, ফেসবুক, টুইটার সহ সমস্ত সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচারের নথি জমা দিতে হবে নির্বাচন কমিশনে। অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপের মাধ্যমে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ জানানো যাবে।
ভোটের ৪৮ ঘণ্টা আগে সমস্ত কেন্দ্রে মাইক, লাউড স্পিকার ব্যবহার নিষিদ্ধ।
সমস্ত ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম)-এ থাকবে প্রার্থীদের ছবি।
সারা দেশে মোট দশ লক্ষ ভোটগ্রহণ কেন্দ্র।
ভোটারদের আস্থা ফেরাতে নিয়মিত রুট মার্চ এবং পেট্রোলিং চলবে। ভোটের দিন কোনও রকম অশান্তি হলে কড়া হাতে মোকাবিলা করা হবে। একটি অ্যাপ চালু করা হয়েছে। যাতে সাধারণ মানুষ কমিশনে অভিযোগ জানাতে পারবেন। নগদে কোথাও লেনদেন হলে তার উপর কড়া নজরদারি থাকবে। কেউ অভিযোগ জানালে তাঁর নিরাপত্তার বন্দোবস্ত করবে কমিশন।
সমস্ত ভোটকেন্দ্রেই ভিভিপ্যাট ব্যবহার করা হবে, জানালেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুনীল অরোরা।
১৭.৪ লক্ষ ভিভিপ্যাট ব্যবহার করা হবে লোকসভা নির্বাচনে।
সাংবাদিক বৈঠক করছেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুনীল অরোরা।
এই নির্বাচনে নতুন ভোটারের সংখ্যা প্রায় দেড় কোটি।
লোকসভা নির্বাচনে সারা দেশে ভোটারের সংখ্যা ৯০ কোটি।
আবহাওয়া, ধর্মীয় উৎসব, পরীক্ষার কথা মাথায় রেখে নির্ঘণ্ট তৈরি করা হয়েছে
কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিব, সমস্ত রাজ্যের পুলিশ- প্রশাসন এবং শুল্ক দফতরের সঙ্গে বৈঠক করেছে নির্বাচন কমিশন।

No comments:

Post a Comment

loading...