Wednesday, 6 March 2019

রাফায়েল সংক্রান্ত নথি চুরি গিয়েছে , দাবি অ্যাটর্নি জেনারেল কে কে ভেনুগোপালের, তাহলে সরকার কি করছিল ?

ওয়েব ডেস্ক ৬ই  মার্চ ২০১৯:সুপ্রিম কোর্টে রাফায়েল মামলার শুনানি চলাকালে সরকার বলেছে যে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে নথিপত্র চুরি হয়ে গিয়েছে। অ্যাটর্নি জেনারেল কে কে ভেণুগোপাল সুপ্রিম কোর্টে বলেন ,প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে নথিপত্র কোন কর্মচারী দ্বারা চুরি হয়েছে। এটি তদন্তের আওতাধীন। আমরা প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে কাজ করছি, যার মধ্যে রাষ্ট্রের নিরাপত্তা অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। এটি একটি খুব সংবেদনশীল বিষয়।


অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন,আইনজীবী প্রশান্ত ভূষণ যে নথির উপর নির্ভর করছে, তা প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে চুরি করা হয়েছে । রাফায়েল চুক্তি সম্পর্কিত নথি চুরির তদন্ত চলছে।প্রথমদিনের শুনানিতে সুপ্রিম কোর্টে এই দাবি করেছেন কেন্দ্রীয় সরকারের অ্যাটর্নি জেনারেল কেকে বেণুগোপাল। তিনি এদিন সুপ্রিম কোর্টে জানিয়েছেন, এটি খুবই স্পর্শকাতর বিষয়। দেশের সুরক্ষার বিষয় নিয়ে সরকারের তরফে কাজ করা হচ্ছে। প্রতিরক্ষামন্ত্রক থেকে কিছু গুরুত্বপূর্ণ নথি চুরি গিয়েছে। সরকারি কর্মচারীরা এই কাজের সঙ্গে যুক্ত বলে মনে করা হচ্ছে।কেন্দ্রের তরফে এই যুক্তি দেওয়ার পর প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ জানতে চান, কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে সরকারি তরফে? অ্যাটর্নি জেনারেল সুপ্রিম কোর্টে জানান, তদন্ত চলছে।প্রসঙ্গত, ফ্রান্সের দাঁসো সংস্থার কাছ থেকে ৩৬টি অত্যাধুনিক রাফালে যুদ্ধবিমান কিনছে ভারত সরকার। এছাড়া আরও ৯০টি রাফালে যুদ্ধবিমান সংযুক্ত ভারতীয় বায়ুসেনায়। তবে দাঁসো ও অনিল অম্বানির সংস্থা ওই বিমান ভারতেই বিমানে।আর এ নিয়েই বিবাদ বেঁধেছে। কংগ্রেসের অভিযোগ, রাফালে নিয়ে দুর্নীতি করছে কেন্দ্রের মোদী সরকার। নিয়ম ভেঙে হ্যালের বদলে অনিল অম্বানি বরাত পাইয়ে দেওয়া হয়েছে।

No comments:

Post a Comment

loading...