Friday, 15 March 2019

কেরালায় সিপিএমকে তাদের মতাদর্শ বিলুপ্ত বলে কটাক্ষ রাহুলের , মোহাম্মদ সেলিম গায়ে যেন ফোস্কা পড়ল

ওয়েব ডেস্ক ১৫ই মার্চ ২০১৯: বিরোধীদের মহাজোটকে কটাক্ষ করেছেন মোদীজি অনেকবার । তার মতে শুধুমাত্র তাকে হারাবার জন্যই বিরোধীরা হাতে হাত মিলিয়েছে এবং সেটা নীতি আদর্শকে বিসর্জন দিয়েই ।আর রাহুল গান্ধীর সাম্প্রতিক কালে কেরালায় গিয়ে কমিউনিস্টদের চিন্তাধারা 'বাতিলের খাতায়' বলায় বিজেপির কল্কেতে হাওয়া পেল বলে মনে করা হচ্ছে ।   ঠিক কি বলেছিলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী ? তিনি বলেছিলেন ''সিপিএম হিংসাই করতে পারে। দুর্বলদের হাতিয়ার হিংসা। অহিংসার পথেই লড়াই করেছে কংগ্রেস। কর্মসংস্থান তৈরি করতে পারে না সিপিএম। ওদের মতাদর্শ বাতিলের খাতায়''।যেটা তিনি বলেননি বা জানেননা , কোনো ব্যাপারকে ভরিয়ে ভরিয়ে নিয়ে যাওয়াতে সিপিএমের কোনো জুড়ি নেই ।
আজ হবে না কাল হবে কাল হবেনা পরশু হবে এগুলো হলো সিপিএমের কার্যপদ্ধতি। মুখে তারা লম্বা চওড়া অনেক কথা বলে যেগুলো শুনতেও ভালো লাগে কিন্তু আদতে সেই পথেই চলছে পুরো সিপিএম দল এটাও মানুষকে বিশ্বাস করায় কিন্তু কোনো সমস্যা  সমাধান করেনা । এটাই তাদের সব থেকে বড় কার্যপদ্ধতি। বাংলার মানুষ বুঝতে পেরেছে বলেই আজ বাংলা থেকে কমিউনিস্ট বিলুপ্ত হতে বসেছে , রাহুল গান্ধী এই ব্যাপার গুলো ভালো করে জানা দরকার । লোকসভা ভোটের নিরিক্ষে বাংলায় সিপিএমের সঙ্গে সমঝোতা নিয়ে আলোচনা চালাচ্ছে কংগ্রেস। হাইকম্যান্ডের নির্দেশেই, রায়গঞ্জ ও মুর্শিদাবাদ আসনটি ছেড়ে দিয়েছেন সোমেন মিত্ররা। এখন কাঁটা হয়ে রয়েছে বসিরহাট ও পুরুলিয়া। ওই দুটি আসন চাইছে সিপিএমের দুই শরিক সিপিআই ও ফরওয়ার্ড ব্লক।গায়ে ফোস্কা পড়ার মত অবস্থা মোহাম্মদ সেলিমের । তিনি বলেন সম্ভাব্য জোটসঙ্গী কংগ্রেসের শীর্ষ নেতার মন্তব্যে বিস্মিত হয়েছেন রায়গঞ্জের সিপিএম প্রার্থী মহম্মদ সেলিম। তাঁর কথায়,''কংগ্রেসের সভাপতির কাছ থেকে এটা আশা করি না। ঠিকই কংগ্রেস গান্ধীবাদ, অহিংসার কথা বলেছে। কিন্তু আমরা গান্ধীবাদী নই। শান্তির জন্য লড়াই করতে হয়। সেই লড়াইটা জান-মান দিয়ে লড়ছে বামপন্থীরা। কেরলে গিয়ে এমনটা বললে সঙ্ঘ পরিবারের লোকেরাই বেশি উত্সাহিত হবে''।সেলিম বাবু অনেক কিছুই বললেন , মাধ্যমিক স্তরে এক বিষয়ে বা দু বিষয়ে ফেল করিয়ে হাজার হাজার ছেলে মেয়ের জীবন নষ্ট করার বিষয়ে কিন্তু একটাও কথা বলেননি , যেটা তারা করে বেরিয়েছিল পশ্চিম বাংলায় ।

No comments:

Post a Comment

loading...