Thursday, 7 March 2019

প্রধানমন্ত্রীর সময়সূচী অনুযায়ী নির্বাচন কমিশন চলেনা , সাফ বক্তব্য কমিশনের

ওয়েব ডেস্ক ৭ই  মার্চ ২০১৯: নির্বাচন কমিশনের মানসিকতা নিয়েই অনেক রাজনৈতিক দল প্রশ্ন তুলেছিল । কেন তুলেছিল ? কারণ তাদের মনে হয়েছিল নির্বাচন কমিশন ইচ্ছাকৃত ভাবেই ভোটের তারিখ ঘোষণা করছেনা যা নিয়ে রীতিমত উষ্মা প্রকাশ করল নির্বাচন কমিশন । কমিশনের সাফ বক্তব্য এখনো হাতে প্রচুর সময় আছে তারিখ ঘোষণা করার তাই এতে বিচলিত হওয়ার কিছুই নেই ।নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে বলা হয়, ‘‌আমরা প্রধানমন্ত্রীর সময়সূচী অনুযায়ী চলি না, আমাদের নিজস্ব সময়সূচী রয়েছে।’‌

২০১৪ সালের লোকসবা নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছিল ৫ মার্চ। ওই প্রসঙ্গ তুলে বেশ কয়েকটি বিরোধী রাজনৈতিক দল অভিযোগ তোলে, কেন্দ্রীয় সরকারকে নিজেদের প্রকল্প ও মানবকল্যাণমূলক কাজগুলির কথা ঘোষণা করার জন্য ইচ্ছাকৃতভাবে নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা করতে বিলম্ব করছে জাতীয় নির্বাচন কমিশন। তার কারণ নির্বাচন কমিশনের নিয়মানুযায়ী একবার ভোটের দিনক্ষণ ঘোষণা হয়ে গেলে, আর সরকার কোনওরকম নতুন প্রকল্পের কথা ঘোষণা করতে পারবে না। তাই সরকারকে সময় দেওয়া হচ্ছে। অন্য দিকে  গুজরাট বিধানসভা নির্বাচনের ক্ষেত্রেও কংগ্রেস ওই রাজ্যের শাসক দল বিজেপি ও নির্বাচন কমিশনের সম্পর্কের দিকে ইঙ্গিত করে একই অভিযোগ তুলেছিল। এই বিতর্কে ঘি ঢেলে  কংগ্রেস নেতা আহমেদ প্যাটেলের একটি টুইটকে কেন্দ্র করে। সেই টুইটে আহমেদ প্যাটেল লেখেন, ‘নির্বাচনের দিন ঘোষণা করার আগে ‌নির্বাচন কমিশন কি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সরকারি সফরসূচিগুলি শেষ করার অপেক্ষা করছে?’ প্রসঙ্গত, ওই টুইটটি তিনি করেছিলেন গত বছর ৪ মার্চ। ২০১৪ সালে যে দিন নির্বাচন কমিশন ভোটের নির্ঘন্ট ঘোষণা করেছিল, তার ঠিক আগেরদিন। যদিও নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গিয়েছে, নির্বাচনের নির্ঘণ্ট ঘোষণা করতে আরও একটু দেরি হবে। কমিশনের পক্ষ থেকে এক শীর্ষ কর্তা বলেন, ‘২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচন শুরু হয় ৩১ মার্চ এবং তার দিন ঘোষণা করা হয় ৫ মার্চ। এ বছর লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল ৩ জুনের মধ্যে ঘোষণা করতে হবে, তাই এখনও আমাদের হাতে অনেক সময় রয়েছে।’ নির্বাচন কমিশন চির কালই নিজেরদের নিয়ম মাফিক চলেছে । তাই বলেই ফেলা যায় আইন চলবে তার নিজের পথেই।

No comments:

Post a Comment

loading...