Monday, 18 March 2019

পাশ করাবার জন্য যোগীর রাজ্যের ছাত্রের লিখিত আর্তনাদ , 'ভবিষ্যতের জওয়ানকে ফেল করালে ব্যর্থ হবে দেশও'

ওয়েব ডেস্ক ১৮ই মার্চ ২০১৯:যোগী আদিত্যনাথ উত্তরপ্রদেশের দায়িত্ব নেওয়ার পর সাধারণ মানুষের কি উন্নতি হয়েছে ? মানুষ যেই তিমিরে ছিল সেই তিমিরেই আছে । তাদের মানসিকতাই এতটুকু পরিবর্তন আসেনি । আগে ছাত্রছাত্রীরা পাশ করার জন্য যে রকম অসৎ উপায় গ্রহণ করত সেগুলো তো এখনো করছে সঙ্গে তার সাথে সাথে নতুন সংযোজন হয়েছে অনুভূতির ফাঁদ।প্রসঙ্গত পড়াশোনা না-করেও পরীক্ষায় পাশ করতে টুকলি, সাইট টক এসব তো পুরনো।
এ বার নয়া সৃজনশীলতার পরিচয় দিয়েছে বেশকিছু ছাত্রী। উত্তরপ্রদেশের বোর্ডের পরীক্ষায় পাশ করতে তারা কাজে লাগাতে চেয়েছে দেশপ্রেমকে। UPSEB-র দশম ও দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষার উত্তরপত্রে বহু ছাত্র লিখেছে, তারা বড় হয়ে সেনাবাহিনীতে যোগ দিতে চায়। বোর্ডের এক নিয়ামক জানিয়েছেন, 'এ বছরও উত্তরপত্র খালি রেখে চলে যাওয়া বা ভুলভাল উত্তর লেখা অব্যাহত রয়েছে। তবে পুলওয়ামায় হামলার পর নেওয়া পরীক্ষাগুলির উত্তরপত্রে অনেকে পরীক্ষকের ইমোশনকে কাজে লাগিয়ে পাশ করার চেষ্টা করেছে।' এক ছাত্র লিখেছে, 'পূজনীয় গুরুজি, আমি দেশসেবার জন্য জওয়ান হতে চাই। দেশের পাশাপাশি আপনার সন্তানকেও শত্রুদের থেকে রক্ষা করতে চাই। নম্বর দেওয়ার আগে নিজের সন্তানের কথা একবার ভাববেন।' আর একজন লিখেছে, 'গুরুজি, আমি ফেল করতে দেশও ব্যর্থ হবে। কারণ আপনি একজন আগামীর জওয়ানকে ফেল করাবেন। তাহলে দেশকে কে রক্ষা করবে?' যোগী আদিত্যনাথ উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর অনেক প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন , কিন্তু আগামী দিনের ভবিষ্যৎ যারা , অর্থাৎ ছাত্রছাত্রী , তাদের মানসিকতার উন্নতি কি করে ঘটবে তার কোনো পদক্ষেপ নিয়েছিলেন কি ? রাজ্যের সম্পর্কে তার কিছু অজানা ছিলনা সেটা হলপ করেই বলে দেওয়া যায় । 

No comments:

Post a Comment

loading...