Thursday, 14 March 2019

সোদপুরে তৃণমূলের নেতা তথা কাজের মানুষ হিসেবে পরিচিত পরিতোষ দাস গুলিবিদ্ধ হলেন

ওয়েব ডেস্ক ১৪ই মার্চ ২০১৯: বাংলার রাজনীতিতে হিংসার বাতাবরণ নতুন করে আমদানি হয়েছে ? না, উন্নয়নে অত্যাধিক মনোযোগী হওয়ার  জন্য শাসক দলের নেতারা কারুর বিরাগভাজন হয়েছেন  ? প্রসঙ্গত তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা পরিতোষ দাস কে লক্ষ্য করে ৫ রাউন্ড গুলি চালাল দুস্কৃতীরা। ঘটনা উত্তর ২৪ পরগনার সোদপুরে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় গুলিবিদ্ধ তৃণমূল নেতাকে বাইপাসের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়।
আক্রান্ত তৃণমূল নেতা পরিতোষ দাস ঘোলা পূর্বাচলের বাসিন্দা। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে বুধবার রাত সাড়ে ১১টা নাগাদ রাতে খাবার কিনে, মোটরবাইকে করে বাড়ি ফিরছিলেন পরিতোষ বাবু। বাইকের পিছনে বসেছিলেন অভিজিৎ রায় নামে তাঁর এক বন্ধু। সেইসময় সোদপুর ট্রাফিক মোড়ের কাছে বাইকের রাস্তা আটকে দাঁড়ায় একটি স্করপিও গাড়ি।অভিযোগ, গাড়ির ভিতরে ৩ জন ছিলেন। আরও ৩ জন যুবক বাইকে করে আসে। তারপরই পরিতোষ দাসকে লক্ষ্য করে ৫ রাউন্স গুলি ছোঁড়ে দুষ্কৃতীরা। রক্তাক্ত অবস্থায় বাইক থেকে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন পরিতোষবাবু। যদিও তাঁর পেছনে বসা অভিজিৎ রায় বেঁচে যান। সঙ্গে সঙ্গেই বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় পরিতোষ দাসকে। বর্তমানে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সেখানেই চিকিত্সাধীন তিনি।
হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই তৃণমূল নেতার বুকে, হাতে সহ শরীরে ৩ জায়গায় গুলি লেগেছে।ভোটের আগেই কেন তৃণমূল নেতারা 'টার্গেট হচ্ছেন' সেটা ভাববার বিষয় । তৃণমূলের সুপ্রিম মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একটা ইচ্ছেই পোষণ করেন , মানুষের জন্য নিঃস্বার্থ ভাবে কাজ করা ।আর যারা কাজের মানুষ তারাই তৃণমূল সুপ্রিমোর সাথে কাজ করছেন ।তাই কি এরকম আক্রমণ ?

No comments:

Post a Comment

loading...