Friday, 5 April 2019

যেই শ্রদ্ধা মোদীজি কখনো দেখাননি আদভানিজিকে , মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেই শ্রদ্ধা দেখালেন

ওয়েব ডেস্ক ৫ই এপ্রিল ২০১৯: লাল কৃষ্ণা আদভানি চিরকালই সত্যের সম্মুখীন হতে ভয় পাননি ।  যা করেছেন তা বুক চিতিয়েই করেছেন । আর হয়তো  এই ব্যত্তিত্বের জন্যই তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে স্নেহ করেন এবং আগামী লোক সভা নির্বাচনে তাকে প্রধানমন্ত্রী পদেই দেখতে চান ।তবে তিনি একা নন , রাম জেটমালিনীও লাল কৃষ্ণা আদভানির সাথে একমত ।   যদিও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার হাওয়াটা রাম জেঠমালানিই প্রথম তুলেছিলেন । আজ যখন লাল কৃষ্ণা আদভানি নিজের দলেই ব্রাত্য সেই সময়েও পাশে পেলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে । প্রসঙ্গত গতকাল আদভানিজি ,একটি দীর্ঘ মন্তব্য পোস্ট করেছেন ব্লগে। তার পরই তোলপাড় জাতীয় রাজনীতি। এ দিন আডবাণীর খোলাখুলি মন্তব্য প্রকাশের পরই স্বাগত জানান পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
এ দিন আডবাণী নিজের ব্লগে উঠে এসেছে অতীত থেকে বর্তমানের তুলনামূলক স্মৃতিচারণা। তিনি লিখেছেন, ”বিজেপির জন্ম থেকে রাজনৈতিক ভিন্নমত পোষণকারীদের শত্রু হিসেবে দেখিনি, বরং বিরোধী ভেবেছি”।কই সঙ্গে তিনি লিখেছেন, ”আমাদের জাতীয়তাবাদ কখনও বিরোধীদের ‘দেশদ্রোহী’ তকমা দেওয়া নয়। ব্যক্তিগত পরিসর ও রাজনৈতিক স্তরে মতপ্রকাশের স্বাধীনতার প্রতি দায়বদ্ধ দল”।এর পরই আডবাণীর মন্তব্যকে উদ্দেশে টুইট করেন মমতা লেখেন, “বিজেপির প্রতিষ্ঠাতা, জনক তথা দেশের প্রাক্তন উপ-প্রধানমন্ত্রী লালকৃষ্ণ আডবাণীজি গণতান্ত্রিক সৌজন্যে প্রসারিত করার বিষয়টি উল্লেখযোগ্য হিসাবে বর্ণনা করেছেন। যে সমস্ত বিরোধী রাজনৈতিক দল বিরুদ্ধে মত পোষণ করে তারা দেশ-বিরোধী নয়। আমরা তাঁর বক্তব্যকে স্বাগত জানাই এবং তাঁর প্রতি আমাদের শ্রদ্ধা অটুট”। সর্বশেষে ,একটা কথা বলতেই হচ্ছে মমতাকে প্রধানমন্ত্রী পদে দেখতে চেয়ে ভুল কিছুই করেননি রাম জেঠমালানিরা ।

No comments:

Post a Comment

loading...