Saturday, 6 April 2019

৬৬ লক্ষ্য টাকার সম্পত্তি ২৫ লক্ষ্য টাকা দেখিয়ে বিপাকে অমিত শাহ , কংগ্রেস ছুটেছে নির্বাচন কমিশনের কাছে

ওয়েব ডেস্ক ৬ই এপ্রিল ২০১৯:আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে হলফনামায় সম্পত্তির তথ্য গোপন করার অভিযোগে খোদ বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ এর বিরুদ্ধে। এমন অভিযোগ তুলে ভারতের ক্ষমতাসীন এই দলের সর্বোচ্চ নেতার প্রার্থীতা বাতিল চেয়ে নির্বাচন কমিশনে আর্জি জানিয়েছে বিরোধী দল কংগ্রেস।
অভিযোগে কংগ্রেস জানিয়েছে, ফের একটি ভূয়া হলফনামা জমা দিয়েছেন অমিত, যেখানে দু’টি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বাদ দেওয়া হয়েছে। প্রথমটি হল গান্ধীনগরের একটি জমি। দ্বিতীয়টি হল, একটি বাণিজ্যিক ব্যাংক থেকে তার ছেলের নামে নেওয়া ঋণ। এই ঋণের জন্য জামিনদার ছিলেন অমিত শাহ নিজেই।’কংগ্রেসের অভিযোগ, ‘ইচ্ছাকৃতভাবে গান্ধীনগরের সম্পত্তির পরিমাণ কমিয়ে দেখিয়েছেন অমিত শাহ। সরকারি নথি অনুযায়ী, এই সম্পত্তির বাজারদর ৬৬ লাখ ৫০ হাজার টাকা। অথচ নিজের পেশ করা হলফনামায় এই সম্পত্তির মূল্য ২৫ লাখ টাকা দেখানো হয়েছে।
গান্ধীনগরের জমি ছাড়াও একটি ব্যাংক ঋণের প্রসঙ্গও তুলেছে কংগ্রেস। তাদের দাবি, লোকসভা নির্বাচনের মনোনয়ন পেশের আগেই নিজের দুটি সম্পত্তি কালুপুর কমার্শিয়াল কো-অপারেটিভ ব্যাংকে বন্ধক রেখেছিলেন অমিত। নিজের ছেলে জয় শাহ এর কোম্পানি ‘কুসুম ফিনসার্ভ’-এর জন্যই এই সম্পত্তি বন্ধক রেখেছিলেন তিনি।
অভিযোগে কংগ্রেস জানিয়েছে, ‘এই জমি বন্ধক রাখার জন্যই অমিত শাহ এর ছেলে জয় শাহকে ২৫ কোটি টাকা ঋণ দিয়েছিল গুজরাটের অন্যতম বৃহত্তম এই কো-অপারেটিভ ব্যাংক। কিন্তু নিজের হলফনামায় এই ঋণের বিষয়টি চেপে গেছেন অমিত শাহ।’
কংগ্রেসের অভিযোগ, এই ভুল ইচ্ছাকৃত। তাই গান্ধীগর কেন্দ্র থেকে যাতে অমিত শাহ প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করতে পারেন, তার জন্য ব্যবস্থা নিক নির্বাচন কমিশন। একই সঙ্গে ভূয়া হলফনামা দাখিলের জন্য বিজেপি সভাপতির বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করার আর্জিও জানিয়েছে কংগ্রেস।

No comments:

Post a Comment

loading...