Sunday, 7 April 2019

মমতাকে খোঁচা মেরে পার পেলেননা মোদী । শুনতে হল সারদাকাণ্ডে অভিযুক্তই প্রধানমন্ত্রীর সভা নিয়ন্ত্রণ করছে

ওয়েব ডেস্ক ৭ই এপ্রিল ২০১৯:সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী আর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে এক নয় সেটা ভালোই টের পেলেন নরেন্দ্র মোদী মহাশয় ।বাংলায় দাঁড়িয়ে তিনি সততার প্রতীকের ওপর কাদা ছুড়বেন তার প্রত্যুত্তরে তিনি ছাড় পাবেন যদি এটাই মনে করে থেকেছিলেন মোদী সাহেব তাহলে অবশ্যই মূর্খের স্বর্গে বাস করছিলেন বলে মনে করেন কলকাতার রাজনৈতিক মহলের একাংশ ।প্রসঙ্গত কোচবিহার থেকে সারদা-নারদা নিয়ে মমতা সরকারকে নিশানা করেন মোদী। ময়নাগুড়ি থেকে খানিকক্ষণের মধ্যেই এর জবাব দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর কথায়, এমন অসৌজন্যমূলক প্রধানমন্ত্রী আমি দেখিনি। যিনি সভা নিয়ন্ত্রণ করছে বিজেপির, তিনি সারদা-নারদায় অভিযুক্ত। তাঁদের পাশে নিয়েই মোদী নারদা-সারদার অভিযোগ করছেন।
মোদীকে বসন্তের কোকিল বলে কটাক্ষ করেন মমতা। এদিনও মোদী আক্রমণের ধারাবাহিকতা বজায় রাখলেন মমতা। তাঁর কথায়, বারাণসীর গঙ্গা পরিষ্কার করতে পারেন না। আবার বাংলার দিকে তাকাচ্ছে। এরপরে তিনি বলেন, ওরা ইতিহাস মানে না। নেতাজি, গাঁধীজিকে মানে না। নিজের সরকারের কাজের খতিয়ান পেশ করতে গিয়ে মমতা বলেন, কলেজ, পলিটেকনিক, কর্মতীর্থ, সব করেছি আমি। আমরা কৃষিজমিতে নিজ পরিবারে জমি হস্তান্তরে মিউটেশন মকুব করেছি। স্বাধীনতার পর থেকে এত কিছু আপনারা পাননি, যা এই সরকার করেছে। স্বাস্থ্যসাথীর স্মার্টকার্ড দিচ্ছি মহিলাদের, যাতে ওরা সারা পরিবারের দেখাশোনা করতে পারে। ২কোটি ৭ লক্ষ ছেলেমেয়ে স্কলারশিপ পেয়েছেন বাংলায়।এদিনও মোদী বিরোধিতা জারি রেখে মমতা বলেন, এই সরকারকে ছুঁড়ে ফেলে দেবেন মানুষ। তবে এটা ঠিক ভারতীয় রাজনীতিতে জোট দ্রুততার সাথে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জায়গা করে নিয়েছেন ,মোদীজির রাতের ঘুম নষ্ট হতে বাধ্য ।  

No comments:

Post a Comment

loading...