Sunday, 14 April 2019

নরেন্দ্র মোদির হার দেখাটাই শত্রুঘ্ন সিনহার জীবনের মূল মন্ত্র হয়ে দাঁড়িয়েছে

ওয়েব ডেস্ক ১৪ই এপ্রিল ২০১৯: তার বিখ্যাত ডায়লগ "খামোশ" এখনো লোকের মুখে মুখে ঘোরে।তিনি "এভার গ্রীন"।   তিনি বিহার তথা ভারত বর্ষের গর্ব । এই তিনিটি কে , সঠিক উত্তর দেওয়ার জন্য কোনো পুরস্কার নেই । সেই আমাদের সকলের প্রিয় শত্রুঘন সিনহা আজ মোদীজিকে এক হাত নিলেন ।প্রসঙ্গত তিনি বিজেপির সাংসদ এবং কেন্দ্রীয় মন্ত্রী দুটোই ছিলেন। কিন্তু দলের বর্তমান নেতৃত্বের উপর আস্থা হারিয়ে দল ছেড়েছেন শত্রুঘ্ন সিন্‌হা।
এবার কংগ্রেসে যোগ দিয়ে বিহারের  পাটনা সাহিব থেকে লোকসভা নির্বাচনে লড়াই করবেন তিনি। তাঁর বিপক্ষে আছেন বিজেপির হেভিওয়েট মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ। তবু জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী শত্রুঘ্ন। আর শনিবার খানিকটা বলিউডি কায়দায় তিনি বললেন ‘‌প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে  লড়তে পারলে তিনি খুশি হতেন।’‌শত্রুঘ্ন বলেন, ‘‌আমি শুনেছিলাম বারাণসীর পাশাপাশি পাটনা সাহিব থেকেও লড়বেন মোদি। তাঁর বিরুদ্ধে দাঁড়াতে পারলে আমার ভাল লাগত।’‌ বাজপেয়ী সরকারের মন্ত্রী শত্রুঘ্ন ২০১৪ সালেও বড় ব্যবধানে জিতেছিলেন পাটনা সাহিব কেন্দ্র থেকে। তবে নতুন সরকার তৈরি হওয়ার পর থেকেই বিজেপির সমালোচনা করেছেন তিনি। অনেকেই বলেন মন্ত্রী হতে চেয়েছিলেন অভিনেতা। সেটা হয়ে ওঠেনি। কিন্তু বিজেপি তাঁর বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেয়নি। তৃণমূলের সমাবেশ যাওয়ার পরও দল তাঁকে বহিষ্কার করেনি। বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুশীল মোদি বলেন, ‘‌শত্রুঘ্ন সিন্‌হা লোকসভা কেন পুরসভা নির্বাচনও জিততে পারবেন না। সেটিরও প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন বলিউডের বিশ্বনাথ।’‌ তার প্রতি যেই অবিচার করা হয়েছে সেগুলো তিনি ভালোভাবেই যে মনে রেখেছেন  সেটা 'বিহারি বাবুর ' কথাতেই পরিষ্কার ।                   

    

No comments:

Post a Comment

loading...