Wednesday, 1 May 2019

অখিলেশের দাবি , মোদীজিকে ৭২ বছরের জন্য নিষেধাজ্ঞা জারি করুক নির্বাচন কমিশন

ওয়েব ডেস্ক ১লা মে ২০১৯: গত সোমবার শ্রীরামপুরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বক্তিতা শুধু মাত্র মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বা বাংলার মানুষকেই অসন্তোষ করেনি , কয়েকশো কিলোমিটার দূরের অখিলেশের রক্তচাপও  বৃদ্ধি করেছে । প্রধানমন্ত্রী যা বলেছেন তা কখনোই কাম্য নয় ভারতীয় রাজনীতিতে । প্রসঙ্গত তিনি বলেছিলেন তৃণমূলের ৪০ জন বিধায়ক তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলেছেন। ২৩ মে’র পরেই তাঁরা দল বদল করে গেরুয়া শিবিরে নাম লেখাবেন বলেও দাবি করেন তিনি। এই মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে অখিলেশের মন্তব্য, “১২৫ কোটি দেশবাসীর আস্থা হারিয়ে এখন ঘোড়া কেনাবেচায় মন দিচ্ছেন মোদী।”
মঙ্গলবার একটি টুইট করে অখিলেশ বলেন, “এতেই মোদীর কালো টাকাসুলভ মানসিকতা প্রকাশ পাচ্ছে। মোদীর ওপরে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা উচিত, তবে সেটা ৭২ ঘণ্টার জন্য নয় ৭২ বছরের জন্য।”উল্লেখ্য, গত ১৫ এপ্রিল একটি উল্লেখযোগ্য সিদ্ধান্ত নিয়েছিল নির্বাচন কমিশন। সাম্প্রদায়িক উসকানিমূলক মন্তব্য করার জন্য উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এবং মায়াবতীর ভাষণের ওপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল। এর মধ্যে যোগীর ওপরে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ ছিল ৭২ ঘণ্টার। কমিশনের সেই সিদ্ধান্তের ধাঁচেই অখিলেশের এ দিনের মন্তব্য বলে ধারণা রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ মহলের।বিশেষজ্ঞদের আরো দাবি , এবারকার ভোট বিজেপির পক্ষে খুব একটা ভালো যে যাবেনা সেটা নরেন্দ্র মোদিও জানেন , আর জানেন বলেই হয়তো পার্মুটেশন কম্বিনেশন আগের থেকে আরম্ভ করে দিয়েছেন ।

No comments:

Post a Comment

loading...