Friday, 31 May 2019

যেই বাংলার থেকে ১৮ আসন পেল বিজেপি , সেই বাংলাকেই ব্রাত্য করে রাখল

ওয়েব ডেস্ক ৩১শে মে  ২০১৯: পশ্চিমবাংলায় বিজেপি ভালো ফল করলেও ,পশ্চিমবঙ্গকে সুনজরে
বিজেপি যে দেখেনা সেটা আবার প্রমাণিত হল ।  সেই বঞ্চনার খাতাতেই পশ্চিমবঙ্গকে রেখে দিল বিজেপি । এর আগেও বারংবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলে এসেছেন কেন্দ্র সরকারের বৈমাত্র সুলভ আচরণ বাংলার সাথে । কিন্তু এবার বাংলার থেকে ১৮টা আসন পাওয়ার পর মাত্র দুজন কে প্রতিমন্ত্রী করার থেকেই প্রমান করে দিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আজ পর্যন্ত বঞ্চনার কথা যা যা বলে এসেছেন বিজেপির বিরুদ্ধে তার মধ্যে একবিন্দুও মিথ্যে ছিল না ।প্রসঙ্গত তৃণমূলের ভোটব্যাংকে ধ্বস নামিয়ে সিপিএমের ভোট নিয়ে বাংলার মাটি থেকে দুই থেকে ম্যাজিকের মত বাড়িয়ে আঠারো জন সাংসদ হয়েছেন। কিন্তু কেন্দ্রে যে নতুন মন্ত্রী পরিষদ গঠিত হয়েছে সেখানে দেখা যাচ্ছে বাঙালি কোনো পূর্ণমন্ত্রী নেই। গত বছর প্রতিমন্ত্রী হিসেবে বাবুল সুপ্রিয় একাই ছিলেন কেন্দ্রে। এবার তার সঙ্গে হলেন মাত্র একজন। দেবশ্রী চৌধুরী। তারা কেউই স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী নন। গত বছর বাংলা থেকে দুজন সাংসদ জিতেছিল, সেখান থেকে একজন প্রতিমন্ত্রী হয়েছিলেন। এর আগেও বাংলা থেকে অধীর চৌধুরী রেল প্রতিমন্ত্রী ছিলেন। তার পক্ষেও বিশেষ কিছু কাজ করা সম্ভব নয়, সেকথা তিনি নিজেই বলতেন।
এই প্রথম বাংলা থেকে ১৮ জন সাংসদ হলেন। এই বাংলায় বিজেপিকে ৩০০ পার করেছে। আশা ছিল তার যোগ্য প্রতিদান মিলবে বাঙালিদের। কিন্তু ফল হল উল্টো। মোদীর মন্ত্রিসভায় মাত্র দুজন প্রতিমন্ত্রী নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হল বাঙালিকে। অনেকেই ভেবেছিলেন, বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ হয়তো পূর্ণ মন্ত্রকের দায়িত্ব পাবেন। পূর্ণমন্ত্রী না হোক, অন্তত স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রীও দেওয়া যেত।১৮জন সাংসদ পাঠানোর পরেও বাংলার এই হাল কেন? কেন বাংলা থেকে পূর্ণ মন্ত্রী দেওয়া হলনা? প্রশ্নটা কিন্তু উঠছে রাজনৈতিক মহলে। বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপতি ভবনে সারাদিন অপেক্ষায় থাকার পর বাংলার বাকি ১৬জন সাংসদ দের চোখে মুখে ছিল হতাশার ছাপ। নিজের নামটা টিভিতে শোনার অপেক্ষায় প্রহর গুনছিলেন তাঁরা। শেষ পর্যন্ত বাবুল ও দেবশ্রী ছাড়া আর কারও কাছে ফোন আসেনি অমিতের। সংবাদ মাধ্যমে সেই হতাশার কথা স্বীকারও করেছেন কেউ কেউ।

সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে বাংলার ঝুলিতে রইল সেই মাত্র দুইজন প্রতিমন্ত্রী। অর্থাৎ হাফ মন্ত্রী। এবারও সেই বাঙালীদের হাতে লেবেনচুষ ধরালেন মোদী-অমিত জুটি। আর এতেই ক্ষোভ দেখা দিয়েছে বিজেপির অন্দরে। অনেকে বলছেন, বিজেপি বাঙালীদের প্রতি কোন নজর দেয় না।কথাটাকি খুবই মিথ্যে ?

No comments:

Post a Comment

loading...