Sunday, 12 May 2019

উত্তরপ্রদেশ থেকে আমদানি করা ভারতী ঘোষের ৬ জন লোক কাঁথিতে শ্লীলতাহানি করল, গ্রামবাসীদের তৎপরতায় ঠাঁই থানাতে

ওয়েব ডেস্ক ১২ই মে ২০১৯: এই কয়েকদিন আগেই ভারতী ঘোষ কেশপুরে দাঁড়িয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের ছেলেদের হুমকি দিয়েছিলেন উত্তরপ্রদেশ থেকে ১০০০ ছেলে এনে ফেলে পেটাবেন ।
 দুঃখজনক এটাই তিনি তার কথা রেখেছেন। তিনি যে ফাঁকা আওয়াজ দেননা সেটাও প্রমান করেছেন তাহলে তার নিয়ে আসা ছেলেরা যদি শ্লীলতাহানি করে তাহলে সেই দায়টাও ভারতী ঘোষের নয় কি ? প্রসঙ্গত কাঁথি লোকসভা কেন্দ্রের তিন নম্বর ব্লকে উত্তর প্রদেশর থেকে দুষ্কৃতী নিয়ে এসে দলীয় প্রচার চালানোর অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে।
শুক্রবার দুপুরের কাঁথি ৩ ব্লকের ভাজাচাউলির গ্রামপঞ্চায়েতের রঘুনন্দনপুরের গ্রামের ভগবতী প্রধান নামে এক মহিলার বাড়িতে হাজির হয় কয়েকজন যুবক। তারপর মহিলার বাড়িতে তার অনুমতি ছাড়াই দুষ্কৃতীরা বিজেপি পতকা লাগাতে থাকে।প্রতিবাদ করলে, এক মহিলাকে শ্লীলতাহানি করে বলে অভিযোগ। পরে মহিলার চিৎকার করলে টাকা দিয়ে মুখ বন্ধ করার চেষ্ঠা করে। যদিও শেষ রক্ষা হয়নি। আক্রান্ত মহিলা বিপদে পড়ে চিৎকার শুরু করে দেয়। গ্রামবাসীরা ছুটে এসে যুবকদের হাতে নাতে ধরে ফেলে। গ্রামবাসীদের থেকে শ্লীলতাহানির খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছেতে খুব বেশি সময় নেয়নি পুলিশ। গ্রেফতার করা হয় ওই ঘটনায় জড়িত আট ব্যক্তিকে। যাদের মধ্যে ছয় জন উত্তর প্রদেশের বাসিন্দা।এখন মানুষের মনে প্রশ্ন ভারতী ঘোষ কি তাহলে আগে থেকেই এ সব প্ল্যান করে রেখেছিলেন ? উত্তরপ্রদেশ থেকে লোক  এনে তিনি বাংলায় ফেলে পেটাবেন এ কথা তিনি আগেই জানিয়েছিলেন কিন্তু তারা শ্লীলতাহানি যে করবেন সেটা কেন জানাননি ? ভারতী ঘোষ এতো  কথা বলতে পারছেন আর এই কথাটা কেন তিনি বললেননা ? সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপারটা নিয়ে ট্রোলড চরমে  ।  

No comments:

Post a Comment

loading...