Monday, 13 May 2019

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কি কোনো গুরুতর রোগে আক্রান্ত ?

ওয়েব ডেস্ক ১৩ই মে ২০১৯:মিথ্যে প্রতিশ্রুতি দিতে দিতে এবার ঢপ দিতেও শুরু করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী । তিনি যেই সব কথা বললেন তা হাস্যকর ছাড়া আর কিছুই নয় । এতে তার ভাবমূর্তির কোনো ক্ষতি হচ্ছে কি না সেটা বিজেপির একটু ভেবে দেখা দরকার । প্রসঙ্গত, তিনি ভেবেছিলেন আকাশে মেঘ থাকায় রাডার কাজ করবে না। সেইজন্যই তিনি বালাকোটে বিমান হানার সবুজসঙ্কেত দিয়েছিলেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির এই মন্তব্যের পর দেশজুড়ে ব্যঙ্গবিদ্রুপের ঝড়।
এবার তাঁর এক সাক্ষাৎকার নেট দুনিয়ায় টুইটে ঝড় তুলেছে। নিউজ নেশনের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে মোদি জানিয়েছেন, টেকনোলজি ব্যবহারে তিনি দেশের প্রথম। তিনি ১৯৮৮ সালে ডিজিটাল ক্যামেরা দিয়ে আদবানির রঙিন ছবি তুলেছিলেন। সেখানই শেষ নয়, তিনি ১৯৮৮ সালেই ইমেল ব্যবহার করতেন। টুইটে অর্থনীতিবিদ রূপা সুব্রমণ্যম লিখেছেন, পাশ্চাত্যে সেইসময় সামান্য কয়েকজনের কাছেই এই প্রযুক্তি ছিল। ভারতে ইমেল ১৯৯৫ সালে চালু হলেও মোদি তা ব্যবহার করেছেন ১৯৮৮ সালেই! উল্লেখ্য, প্রথম ডিজিটাল ক্যামেরা বাজারের আসে ১৯৯০ সালে। সেটি ছিল ডাইক্যাম ১ মডেল। এবং ইন্টারনেট ভারতে চালু হয়েছিল ১৯৯৫ সালের ১৪ আগস্ট। এআইএমআইএমের আসাদুদ্দিন ওয়াইসির মতে, এমন প্রধানমন্ত্রী হাতে দেশের নিরাপত্তা সুরক্ষিত নয়। বিশিষ্ট গবেষক অশোক সোয়াইনের টুইটে বলা হয়েছে, এই মানুষটা গুরুতর কোনও রোগে আক্রান্ত। ওঁর চিকিৎসার প্রয়োজন।এর থেকে বেশি প্রতিক্রিয়া পাওয়টা লজ্জার বিষয়, তবে এখনো সময় আছে নিজেদের শুধরে নেওয়ার ।

No comments:

Post a Comment

loading...