Wednesday, 1 May 2019

যিনি একসময়ে অটলজির ব্যাগ বইতেন আজ তার হাতে দেশ ,কটাক্ষ মমতার

ওয়েব ডেস্ক ১লা মে ২০১৯:কোনোদিন এটা হওয়ারই ছিল , সেটা হল আজ । যেভাবে বিজেপি হিংসার রাজনীতি ছড়াচ্ছিল সারা দেশে সেখানে কলাকুশলীরা থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ সবাই বিজেপি পক্ষে ভোট না দেওয়ার সিদ্ধান্ত জানিয়েছিল জনগণকে । আজ হয়তো সেই কথাই মমতার মুখে প্রতিধ্বনিত হল । বিগত পাঁচ বছরে নোটবন্দি থেকে শুরু করে এনআরসি সবেতেই অরাজগতা সৃষ্টি হয়েছে বিজেপি সরকারের আমলে , স্বয়ংক্রিয় ভাবে চলে আসে বিজেপি নেতৃত্বের যোগ্যতার প্রশ্ন , এবার সেটাই জানিয়ে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । 
তৃণমূল প্রার্থী প্রসূন ব্যানার্জি’‌র সমর্থনে বুধবার আন্দুল রাজবাড়িতে নির্বাচনী প্রচার থেকে আক্রমণের ঝড় তোলেন মুখ্যমন্ত্রী। কটাক্ষের সুরে মমতা বলেন, ‘‌কোনওদিন রাজনীতি করেছে! আমাদের ব্লক সভাপতির যা যোগ্যতা আছে সেটা অমিত শাহের নেই। জেলা সভাপতির যা যোগ্যতা আছে সেটা নরেন্দ্র মোদির নেই।’‌ এমন নেতাদের দেশের মানুষ ভোট দেবে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ দেখা দিয়েছে। কারণ নরেন্দ্র মোদির সমাজ এবং রাজনীতি সম্পর্কে জ্ঞান নেই বলে দাবি করেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর মন্তব্য, ‘‌রাজনৈতিক দলের রাজনীতি ও সমাজ সম্পর্কে জানা উচিত। দেশের সংস্কৃতি সম্পর্কে জানা উচিত। নির্বাচন আসলেই দাঙ্গা লাগিয়ে দাও। ভেদাভেদের রাজনীতি করে ওরা।’‌অন্যদিকে কিভাবে তিনি নরেন্দ্র মোদিকে চিনলেন, এদিন সে তথ্যও প্রকাশ্যে নিয়ে এসেছেন মুখ্যমন্ত্রী। আন্দুলের সভায় তৃণমূল সুপ্রিমো জানান, তিনি যখন রেলমন্ত্রী ছিলেন, তখন আরএসএসের প্রচারক ছিলেন নরেন্দ্র মোদি। বইতেন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ীর ব্যাগ। এরপরই মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‌চিনতামও না কোনওদিনই। আমি প্রথম দেখেছিলাম, অটলবিহারী বাজপেয়ী তখন প্রধানমন্ত্রী। গুজরাটে ভূমিকম্প হয়েছিল। সেই ভূমিকম্পের সময় রেলমন্ত্রী ছিলাম। রাতে রেললাইন পেতে দিয়েছিলাম। তখন গুজরাটে গিয়েছিলাম। অটলজির ব্যাগ ধরে নামছেন এক ভদ্রলোক। তখন অটলজি–কে জিজ্ঞাসা করেছিলাম, ইনি কে?‌ তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী জবাব দিয়েছিলেন, ইনি নরেন্দ্র মোদি। আরএসএসের প্রচারক।’‌ তারপরই সরাসরি আক্রমণ শানিয়ে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‌ওঁর হাতে এখন গোটা দেশের দায়িত্ব। বিজেপি দলের দায়িত্ব। আর তা কেমন চলছে সেটা আডবাণীজিকে জিজ্ঞেস করুন অভিজ্ঞতা কী। মুরলী মনোহর যোশীকে জিজ্ঞেস করুন, অভিজ্ঞতা কী। আমি বলতে চাই না।’‌আমি বলতে চাইনা বলে অনেক না বলা কোথাও বলে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । ২৩ মে আসছে সেখানেই এই অরাজগতা শেষ হয় কি না এখন সেটাই দেখার ।

No comments:

Post a Comment

loading...