Wednesday, 15 May 2019

রবি কিষান যিনি ভোজপুরি সিনেমার হার্টথ্রব, বিজেপিতে ঢুকেই গালিগালাজ করে ভূত নাচালেন দলীয় বিধায়কের , চারিদিকে নিন্দা

ওয়েব ডেস্ক ১৪ই মে ২০১৯:বিজেপির নেতা নেত্রী মানেই , কু কথা, কুকাজের ফোয়ারা থাকবে ।  ভদ্রতার কোনো লেশ মাত্র টুকু থাকবেনা , মুখে ছাপার অযোগ্য কথা গঙ্গার জলের মতো বয়ে যাবে । এটাই এখন  বিজেপি নেতাদের ট্রেড মার্ক । শুধু তাই নয় যারা নতুন টিকিট পেয়েছেন তারাও দ্রুত এটা রপ্ত করে নিয়েছেন , সে তাদের ভাবমূর্তি যাই থাকুকনা কেন । ভোজপুরি সিনেমা তথা  বলিউডে নামকরা নাম রবি কিষান ।তিনি এই গরমে মেজাজ হারালেন তারই দলের বিধায়কদের ওপর ।  সঙ্গে আওড়ালেন গালিগালাজ যা কানে আঙ্গুল দিতে হয় । সূত্রের খবর অনুসারে একই রাস্তায় তাঁর কনভয় চলে এসেছে তৃতীয় বার। এমনিতেই, ভোটের আগে সময় কম। তার ওপর প্রত্যেক ভোটারের কাছে পৌঁছে যাওয়ার কঠিন চ্যালেঞ্জ। সেই সঙ্গে কাঠফাটা গরম। তার মধ্যে যদি একই এলাকায় তিন বার যেতে হওয়ায় মেজাজ নিয়ন্ত্রণ করতে না পেরে, রবি কিষেণের রাগ গিয়ে পড়ে স্থানীয় বিধায়কের ওপর। এক জন সমর্থককে তিনি জিজ্ঞেস করেন, এখানকার বিধায়ক কে? উত্তর মিলতেই ওই বিধায়কের উদ্দেশ্যে অশ্রাব্য গালিগালাজ করতে শোনা যায় তাঁকে।
প্রসঙ্গত, রবি কিষেণের তোপের মুখে পড়া ওই বিধায়ক, রাধামোহন দাস আগরওয়াল, ২০০২ থেকে গোরক্ষপুর শহর কেন্দ্রের বিধায়ক। যোগী আদিত্যনাথের হাত ধরেই বিজেপিতে আসেন তিনি। এবং পরপর তিন বার বিধায়ক নির্বাচিত হন নিজের জনপ্রিয়তার জোরে। এ হেন বিধায়কের উদ্দেশ্যে তাঁর এই গালিগালাজ, অসম্মান প্রদর্শন যে মোটেই সমর্থনযোগ্য নয়, সে কথা বলছেন রবি কিষেণের ভক্তরাও। অনেকে বলছেন, এই ঘটনার প্রভাব ভোটের ব্যালটেও পড়তে পারে। আবার এ নিয়েও কথা উঠছে যে, রবি বিজেপির টিকিটে যে কেন্দ্রের প্রার্থী হয়েছেন, সেই কেন্দ্রের অন্তর্গত দলীয় বিধায়কদের নামই জানেন না তিনি। যা খুবই লজ্জার ব্যাপার।
বিজেপিতে নাম লিখিয়েছে রবি কিষান , লজ্জা বলে কিছু থাকা উচিত নাকি ?

No comments:

Post a Comment

loading...