Saturday, 18 May 2019

বিজেপির সবাই যখন বিতর্কে জড়াচ্ছেন তাহলে সানি দেওলও বা বাদ যাবেন কেন , পেলেন নির্বাচন কমিশনের নোটিশ

ওয়েব ডেস্ক ১৮ই মে ২০১৯:নির্বাচন আচরণ বিধি ভঙ্গ করাটা বিজেপির নেতা নেত্রী এবং লোকসভা টিকিট পাওয়া বিজেপি প্রার্থীদের কাছে জলভাতের মতো হয়ে গেছে । আর এই বিধি ভাঙাতে নাম লিখিয়ে ফেললেন "গাদার"  সিনেমার নায়ক সানি দেওল।   প্রসঙ্গত গুরদাসপুরের বিজেপি প্রার্থী অভিনেতা সানি দেওলকে নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গের অভিযোগে নোটিশ পাঠাল নির্বাচন কমিশন।
আগামী ১৯ মে লোকসভা নির্বাচনের সপ্তম দফায় ভোটগ্রহণ গুরদাসপুরে। কমিশনের নিয়ম মতে, গত ১৭ মে বিকেল পাঁচটার মধ্যেই প্রচার শেষ করার কথা প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী রাজনৈতিক দলগুলির। কিন্তু অভিযোগ, গত শুক্রবার বিকেল পাঁচটার পরেও নিজের নির্বাচনী কেন্দ্রের পাঠানকোটে প্রচার চালিয়েছেন সানি।কমিশনের সূত্র জানায়, প্রায় দু’শোর উপর কর্মী-সমর্থক নিয়ে আয়োজিত গত শুক্রবার রাতের ওই সভায় লাউডস্পিকারও বাজানো হয়। যে কারণে তাঁকে নোটিশ পাঠায় কমিশন। ওই দিনই পাঠানো নোটিশে স্পষ্টত জানানো হয়েছে, আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই যেন জবাব দেন সানি।

গত ২৩ এপ্রিল বিজেপিতে যোগ দেন সানি। এর পরেই তাঁকে বিজেপি গুরদাসপুর কেন্দ্র থেকে প্রার্থী করে। তবে গোটা নির্বাচনী প্রচারে বলিউড তারকা বেশ বুদ্ধিদীপ্ত ভাবেই সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দেন। চলচ্চিত্র এবং বাস্তব জীবন যে পুরোপুরি আলাদা, সে কথাও একাধিকবার জানান।উল্লেখ্য, শেষ দফায় পঞ্জাবের ১৩টি লোকসভা আসনেই ভোটগ্রহণ। গুরদাসপুরে কংগ্রেস প্রার্থী সুনীলকুমার জাখরের সঙ্গেই সানির মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। বিজেপি সাংসদ বিনোদ খান্নার মৃত্যুর পর ওই কেন্দ্রের উপনির্বাচনে জয়ী হন জাখরই। তবে গুরদাসপুরে আপ-সহ অন্যান্যরাও প্রার্থী দিয়েছে।হা সানির কাজটা একটু হলেও কঠিন করে দেবে ।

No comments:

Post a Comment

loading...