Saturday, 4 May 2019

টাটা ন্যানো বাংলা থেকে ফিরিয়ে গুজরাটে নিয়ে গিয়েছিল , এবার ট্রিপল বিনিয়োগ করল মমতায় উজ্জীবিত হয়ে

ওয়েব ডেস্ক ৪ঠা  মে ২০১৯:যারা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারে আসার পর বলে বেড়াচ্ছিলেন ,শিল্প নেই বলে আজ তাদের চোখ মেলে দেখার সময় এসেছে । যেই টাটা, চলে গেছে বলে আলিমুদ্দিন নিজেদের ঘর গোছাবার বেকার খাটনি খাটছিল তাদের এবার মুখ বন্ধ করার সময় এসেছে ।প্রসঙ্গতঅন্য রাজ্য ছেড়ে টাটার তিনটি ব্যবসা বাংলায় চলে এসেছে। আর এই ‘সুখবর’কে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাফল্যের অংশ দেখিয়ে ভোট বাজারে নেমে পড়ল তৃণমূল কংগ্রেসও। রাজ্যে টাটাদের বিনিয়োগ-তথ্য নিয়ে সম্প্রতি এক বিশেষ ভিডিয়ো পোস্ট করেছেন তৃণমূলের রাজ্যসভার দলনেতা তথা প্রধান জাতীয় মুখপাত্র ডেরেক ও’ব্রায়েন।
প্রসঙ্গত, ‘সৌহার্দ্যপূর্ণ অভ্যর্থনা’ পেলে ফের বিনিয়োগের কথা বলেছিলেন রতন টাটা। আর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আমলেই রাজ্যে ফের বিনিয়োগ টাটা গোষ্ঠীর। ওডিশা থেকে টাটা স্পঞ্জ আয়রন নিজেদের রেজিস্টার্ড অফিস পশ্চিমবঙ্গে সরিয়ে আনছে। সম্প্রতি কলকাতার সংস্থা ঊষা মার্টিনের ইস্পাত ব্যবসাকে অধিগ্রহণ করে টাটা স্পঞ্জ আয়রন কলকাতায় আসছে। একই কারণেই সংস্থার রেজিস্টার্ড অফিস ওড়িশার কেওনঝাড় থেকে এ রাজ্যের কলকাতায় সরিয়ে আনা হচ্ছে৷ এছাড়াও নির্মাণ ও খনি সরঞ্জাম উৎপাদনকারী সংস্থা টাটা হিতাচি এবার নিজেদের যাবতীয় কার্যকলাপ ঝাড়খণ্ড থেকে বাংলায় স্থানান্তকরণ করছে।পাশাপাশি, রাজ্যের চা উৎপাদকারী সংস্থা ধানসিড়ি-র সঙ্গে যোগ দিয়েছে টাটা। রাজ্যে টাটাদের হ্যাটট্রিক বিনিয়োগের খবর জানিয়ে সম্প্রতি নিজের ‘আউটসাইড পার্লামেন্ট’ ভিডিয়োতে প্রচার-তথ্য দিয়েছেন ডেরেক ও’ব্রায়েন। এর আগে ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় সরকারের মিথ্যা প্রচার ও রাজ্যের প্রতি বঞ্চনার তথ্য এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে বাংলার উন্নয়নের খবর জানাতে ভোট বাজারে ‘আউটসাইড পার্লামেন্ট’ ভিডিয়ো-পোস্টের সূচনা করেছেন ডেরেক। আর সেই মুকুটেই নতুন পালক হিসেবে রাজ্যে টাটার বিনিয়োগ যোগ হল। জনগণের মনে রাখা দরকার , কমিউনিস্ট পার্টি এরা মানুষের উন্নতির জন্য কিছুই করবেনা এদের মূল উদ্দেশ্য নিজেদের সংগঠন মজবুদ করা , এবং সেটা মানুষকে পিষে মেরে । কারণ যত অভাব ততই লোক সংগঠনে যোগ দেবে । আর তাই জন্যই এরা বাংলা ত্রিপুরা থেকে বিতাড়িত ।

No comments:

Post a Comment

loading...