Sunday, 30 June 2019

নুসরাত জাহান কি পোশাক পরবেন আর কি পরবেন না। সেটা কি তার পরিবারের বাইরের কোনো লোক ঠিক করে দেবে ?

ওয়েব ডেস্ক ৩০শে  জুন ২০১৯: ভারত একটি ধর্মনিরপেক্ষ দেশ, সেখানে কে কি পোশাক পড়বে সেটাও কি কোনো উগ্র ধর্মীয় সম্প্রদায়ের কেউ ঠিক করে দেবে ? অবশ্যই না । স্বাধীন ভারতে শালীনতা বজায় রেখে যে কেউ যা খুশি পোশাক পড়তে পারে এর মধ্যে ধর্মীয় মেরুকরণ যোগ করাটাই মূর্খামি ছাড়া কিছুই নয় । প্রসঙ্গত নব নির্বাচিত তৃণমূল সাংসদ নুসরাত জাহান গত ১৯শে জুন বিয়ে করেন ব্যবসায়ী নিখিল জৈনকে তারপর তিনি সংসদে যান কপালে সিঁদুর, হাতে বালা পরে । এ নিয়ে কিছু লোকের দৃষ্টি কটু লেগেছে , কারণ নুসরাত যান মুসলিম , তাদের প্রশ্ন কেন তিনি বোরখা পরে আসেননি ? প্রশ্ন যেমন উঠেছে ভারতের একাংশ মানুষ আবার তার পাশে দাঁড়িয়েছেনও । তাদের প্রশ্ন নুসরাত কি পড়বে আর কি পড়বেনা সেটা ঠিক করবে নুসরাত জাহান নিজেই , অন্য কেউ নয় ।ট্যুইটার বার্তায় নুসরাত জাহান নিজে জানিয়েছেন , আমি সমন্বিত ভারতের প্রতিনিধিত্ব করি। যে ভারত জাতি ধর্মের ঊর্ধ্বে উঠে নিজের সমন্বিত চরিত্র তুলে ধরতে পারে।
তিনি আরও লিখেছেন, সব ধর্মকে তিনি শ্রদ্ধা করেন। এরপরে তাঁর স্পষ্ট বক্তব্য, আমি মুসলিম, কিন্তু কেউ বলে তিনি পারেন না আমি কী পোশাক পরব। আস্থা বিষয়টি পোশাক পরিচ্ছদের অনেক উর্ধ্বে, এটা পুরোটাই বিশ্বাস এবং সকল ধর্মের মূল্যবান মতবাদ নিজের মতো করে চর্চা করার উপরেই নির্ভর করে।গত ২৫ জুন সংসদে শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে কেন ‘অ-ইসলামিক’ সাজে এসেছিলেন নব নির্বাচিত এই সাংসদ। এই নিয়ে অদ্ভুত সমালোচনা শুরু করেছে মুসলিম ধর্মীয় সম্প্রদায়ের একটি দল। নববিবাহিত এই সাংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে রীতিমতো ফতোয়া জারি করেছে কট্টর মুসলিম ধর্মাবলম্বী দলগুলি।তাতে নুসরাতের গায়ে যে আঁচও পড়বেনা সেটা এখনই বলে দেওয়া যায়।,

No comments:

Post a Comment

loading...