Thursday, 20 June 2019

নিজের মাথা নিজে ফাটিয়ে পুলিশের নামে দোষ দিলেন বিজেপি বিধায়ক

ওয়েব ডেস্ক ২০শে  জুন ২০১৯: বিজেপির এক একজন নেতাদের আপনার মনে হতেই পারে এঁরা এক এক জন বিখ্যাত অভিনেতা ।নিজেদের স্বার্থ চরিতার্থ করার জন্য  এঁরা কি না করতে পারে , আর কত নিচেই না নামতে পারে ।  প্রসঙ্গত    বিজেপি বিধায়ক রাজা সিং বিশিষ্ট স্বাধীনতা সংগ্রামী রানি অবন্তী বাই লোধের মূর্তি স্থাপন করার চেষ্টা করলে উত্তেজনা ছড়ায় হায়দরাবাদের ওল্ড সিটি এলাকায়। বুধবার রাতে জুমেরাত বাজারে ওই ঘটনায় তাঁর মাথা ফাটে। অভিযোগ ওঠে, পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের মাঝে পড়ে তাঁর মাথা ফেটে যায়। পুলিশ অস্বীকার করলেও বিধায়কের দাবি ছিল, চার পুলিশকর্তা তাঁকে আঘাত করেছেন। কিন্তু একটি সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত ভিডিওয় স্পষ্টতই দেখা যাচ্ছে, অন্য কেউ নন, তিনি নিজেই পাথরের আঘাতে মাথা ফাটিয়েছিলেন।

ঘটনার পর পুলিশ জানিয়েছিল, ওই স্থানে মূর্তি স্থাপনের কোনো অনুমতি নেননি বিধায়ক। পুলিশ দাবি করে, অনুমতি না-থাকায় মূর্তি স্থাপনে নিষেধ করা হয়। বলা হয়, প্লাস্টার অব প্যারিস এবং ফাইবার দিয়ে তৈরি ওই মুর্তি যে কোনো সময় ভেঙে পড়তে পারে। যাতে আহত হতে পারেন পথচারীরা। কিন্তু কোনো কথাই শোনেননি ঘোশামাহালের বিজেপি বিধায়ক। যার জেরে ছড়ায় উত্তেজনা। তাতে বাড়তি ঘৃতাহুতি করে বিধায়কের নিজের কার্যকলাপ।উল্টে জখম হওয়ার পর রাজা অভিযোগ করেন, চার পুলিশ কর্তা মিলে তাঁর উপর আঘাত করা হয়েছে। তিনি এ ব্যাপারে অভিযুক্ত হিসাবে তুলে ধরেন ঘোশামাহালের এসিপি এম নরেন্দ্র, আসিফনগরের এসিপি নরসিমা রেড্ডি এবং সাব-ইন্সপেক্টর গুরুমূর্তি এবং রবি কুমারের নাম। তাঁর জোরালো অভিযোগ ছিল, ওই চার পুলিশকর্তা তাঁকে আঘাত করেছেন।
বৃহস্পতিবার ভোর তিনটের সময় তাঁকে মাথায় আঘাত নিয়ে ওসমানিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভরতি করা হয়। সঙ্গে তাঁর বিরুদ্ধে রুজু হয় বেআইনি জমায়েত এবং দাঙ্গা বাঁধানোর মামলা।

No comments:

Post a Comment

loading...