Monday, 1 July 2019

বান্ডেলের রেশ কাটতে না কাটতে আবার খুন তৃণমূলের নেতা , অভিযোগের তীর বিজেপির দিকে

ওয়েব ডেস্ক ১লা জুলাই  ২০১৯: বাংলার মানুষ ইতিমধ্যেই দাবি করেছে , অবিলম্বে বিজেপির এই     সন্ত্রাসের রাজনীতি বন্ধ হোক । কিন্তু এতে কোনো যে লাভ হচ্ছেনা সেটা আবার প্রমাণিত । এটা দিনের আলোর মতন পরিষ্কার সিপিএমের হার্মাদরাই বিজেপিতে ঢুকে তৃণমূলের কর্মীদের মারছে , তবুও বিজেপির তরফ থেকে এখনো কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি । প্রসঙ্গত বান্ডেলের ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই আবারও তৃণমূল নেতাকে খুনের অভিযোগ উঠল বাংলায়। পশ্চিম মেদিনীপুরের নারায়ণগড়ে তৃণমূল নেতাকে খুনের অভিযোগ উঠেছে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে।
ধানজমি থেকে উদ্ধার করা হয়েছে তৃণমূলের বুথস্তরের নেতা গণেশ ভুঁইয়ার দেহ। মৃতদেহের পাশ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে বাইক ও লাঠি। পিটিয়ে খুন করা হয়েছে কিনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। অন্যদিকে, এ ঘটনায় তারা জড়িত নয় বলে দাবি করেছে বিজেপি। ‘তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের’ জেরেই খুন বলে দাবি স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের।ঠিক কী অভিযোগ?
নিহতের পরিবারের তরফে অভিযোগ করা হয়েছে, গতরাতে চককিশোর গ্রামের বাড়ি থেকে গণেশকে ডেকে নিয়ে গিয়ে পাশের গ্রামে খুন করা হয়েছে। বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই এ ঘটনার নেপথ্যে রয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে পরিবারের তরফে। এ প্রসঙ্গে নিহতের স্ত্রী বলেন, ‘‘গুলি করে মেরেছে আমার স্বামীকে। বিজেপির লোকেরাই দায়ী। আমার স্বামী তৃণমূল করত’’।এ ঘটনা প্রসঙ্গে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের তরফে দাবি করা হয়েছে, ‘‘বিজেপি খুন-সন্ত্রাসের রাজনীতি কায়েম করতে চাইছে। চারদিকে হামলা, খুন, লুঠ করে বিজেপি আসল চরিত্রের পরিচয় দিচ্ছে। তৃণমূল ধৈর্য ধরে গণতন্ত্রকে রক্ষা করার কাজ করছে। ২০১১ সালে নির্বাচনে জয়ের পর তৃণমূল কোনও হামলা করেনি’’। বিজেপির তরফ থেকে চিরাচরিত একটাই উত্তর পাওয়া গেছে , তারা এসবের সাথে জড়িত নয় ।

No comments:

Post a Comment

loading...