Monday, 29 July 2019

সোনার মেয়ে আয়েশাকে সংবর্ধনা দিলেন মদন মিত্র

ওয়েব ডেস্ক ২৯ই জুলাই ২০১৯: রাজাবাজারের  বস্তির মেয়ে আয়েশা যে নিজের পরিবারের সঙ্গেই শান্তিতে  দিন কাটাচ্ছিল , কিন্তু একদিন নির্ভয়া কাণ্ডের তাকে ণর দেয় সে প্রচন্ড উদ্বিগ্ন হয়ে পরে ।তার পরেই সে  প্রতিজ্ঞা নিয়েছিলেন কলকাতার বস্তি এলাকার কোনও মেয়েরই সর্বনাশ হতে দেবেন না। সেই স্বপ্ন বাস্তবায়িত করতে রাজাবাজার সাধনা সরকার উদ্যানে চালু করেছিলেন ক্যারাটে প্রশিক্ষণ শিবির। যেই শিবিরের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল তিন বারের বিশ্ব ক্যারাটে চ্যাম্পিয়ন আয়েশা নূর ও তাঁর কোচ তথা আর এক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন এমএ আলিকে। যাঁর উদ্যোগে এই ক্যারাটে প্রশিক্ষণ শিবির চালু হয়েছিল, তিনি আর কেউ নন রাজ্যের তৎকালীন ক্রীড়ামন্ত্রী মদন মিত্র। তিনি অবশ্য এখন আর রাজ্যের মন্ত্রী বা বিধায়ক কোনওটিই নন। কিন্তু এখনও যে তাঁর মন পড়ে রয়েছে সেই ছোট্ট আয়েশার দিকে, আবারও তার প্রমাণ মিলল।
রবিবার বেলঘড়িয়া ভৈরব গাঙ্গুলি কলেজের অডিটোরিয়াম হলে এক বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আয়েশাকে সংবর্ধিত করলেন এলাকার ‘বেতাজ বাদশা’ মদন মিত্র। এছাড়া সংবর্ধনা দেওয়া হয় রাজাবাজারের ওই ক্যারাটে প্রশিক্ষণ শিবিরের আরও পাঁচ শিক্ষার্থীকে। যাঁরা আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর ক্যারাটে ওয়ার্ল্ড মিটে থাইল্যান্ডে যাচ্ছেন। তাঁদের সংবর্ধনা দেওয়ার পাশাপাশি প্রতিযোগিতায় জয়ের জন্য আশীর্বাদও করেন মদন মিত্র।

এছাড়া এদিন কামারহাটি পুরসভা এলাকার মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক ও জয়েন্টে উত্তীর্ণ কৃতীদের পুরস্কৃত করা হয়। এদিনের অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের পরিষদীয় মন্ত্রী তাপস রায়, কামারহাটি পুরসভার চেয়ারম্যান গোপাল সাহা, চেয়ারম্যান ইন কাউন্সিল কালাম আনসারি সহ বিশিষ্টরা।
এদিনের অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে সকাল থেকেই উত্তেজনা ছিল স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে। সন্ধ্যাবেলা মদন মিত্র গিয়ে পৌঁছাতেই সেই উত্তেজনা আরও চরমে পৌঁছায়। অনুষ্ঠানে মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক ও জয়েন্টের কৃতী ছাত্রছাত্রীদের সংবর্ধনা দেওয়া হলেও মূল ফোকাস ছিল আয়েশার দিকেই। যে দেশের সন্মান বিদেশের মাটি থেকে নিয়ে এসেছে তার দিকে তো ফোকাস থাকবেই । তাই নয় কি ?

No comments:

Post a comment

loading...