Saturday, 20 July 2019

তৃণমূলকে এতো ভয় যোগী আদিত্যনাথের ? শেষ পর্যন্ত বারাণসীতে ডেরেক ও ব্রায়ানদের আটক করলেন !

ওয়েব ডেস্ক ২০ই জুলাই  ২০১৯: যোগী আদিত্যনাথ যখন ভোট প্রচারে কলকাতায় আসেন তখন বিজেপি সদস্যদের মুখে একটাই কথা ঘোরাফেরা করে , রাজ্যসরকার কোনো সহযোগিতা করছেনা  বিজেপিকে সভা করতে দেওয়ার জন্য । তাহলে তৃণমূলের মন্ত্রীরা যখন উত্তরপ্রদেশের শোনভদ্রে নিহত এবং আহতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন বারাণসীতে তাহলে কেন তাদেরকে পুলিশ দিয়ে আটক করা হচ্ছে , এই প্রশ্নের উত্তর দিতে বাধ্য যোগী আদিত্যনাথ , যদিও তিনি এখনো দেননি । প্রসঙ্গত উত্তরপ্রদেশের শোনভদ্রে নিহত এবং আহতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে বারাণসী বিমানবন্দরে পুলিশের হাতে আটক হলেন তৃণমূল কংগ্রেসের সংসদীয় প্রতিনিধি দল। শনিবার সকাল সাড়ে ৯টা নাগাদ ডেরেক ও’ ব্রায়েনের নেতৃত্বে তৃণমূল সাংসদেরা বিমানবন্দরে পৌঁছন। সেখানেই তাঁদের বাধা দেন উত্তরপ্রদেশের রাজ্য পুলিশের আধিকারিকেরা।
ডেরেকের সঙ্গে ছিলেন সাংসদ আবীর বিশ্বাস এবং সুনীল মণ্ডল। একটি ভিডিও বার্তায় ডেরেকের অভিযোগ, তাঁরা নিহত ও আহতদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতেই বারাণসী এসেছেন। কিন্তু বিজেপি সরকার তাঁদের আক্রান্তদের পরিজনদের সঙ্গে দেখা করতে দিচ্ছে না। কেন তাঁদের আটক করা হয়েছে, তা জানানো হয়নি বলেও দাবি করেছেন ডেরেক। এর প্রতিবাদে বিমানবন্দরে ধর্ণায় বসেছেন তিন তৃণমূল সাংসদ।প্রসঙ্গত, জমি সংক্রান্ত বিবাদের জেরে শুরু হওয়া বন্দুকযুদ্ধে মোট ১০ জনের প্রাণ গিয়েছে শোনভদ্রের উভা গ্রামে। বিদ্যজনেদের একাংশের অভিমত , মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ করার আগে বিজেপির উচিত নিজেদের মানসিকতার  দিকে ফিরে তাকান । যা নিয়ে তারা দোষারোপ করছেন সেই কাজটাই তারা করে বেড়াচ্ছেন । 

No comments:

Post a comment

loading...