Thursday, 11 July 2019

কর্নাটকে দেদার ঘোড়া কেনা বেচা চালাচ্ছে বিজেপি , অভিযোগ মমতার। পাশে দাঁড়াল বাম ও কংগ্রেসও

ওয়েব ডেস্ক ১১ই জুলাই  ২০১৯: বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে অনেকদিন ধরেই বিজেপিকে কাঠগোড়ায় তোলা হচ্ছিলো কর্ণাটকের এই টালমাটাল অবস্থার জন্য । কুমারস্বামী সরকার ফেলে দেওয়ার ব্যাপারে বিজেপি যে স্লটে পাকাচ্ছে সে ঠাট্রা হারে বুঝিয়েও দেওয়া হয়েছিল  পিছিয়ে থাকলেননা সততার প্রতীক মমতাও । তিনি আজ বিধানসভায় এক হাত নিলেন বিজেপিকে ।তাকে  একযোগে সমর্থন করে বাম এবং কংগ্রেসও । এ নিয়ে এবার একটি নিন্দা প্রস্তাব গৃহীত হল এ রাজ্যের বিধানসভাতে।এই প্রস্তাবের পক্ষে দাঁড়িয়ে তৃণমূলের পাশাপাশি কংগ্রেস ও বামফ্রন্টের বিধায়করাও বিজেপির ‘ঘোড়া কেনাবেচা’র রাজনীতির বিরুদ্ধে সরব হলেন। গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

বুধবার বিধানসভার অধিবেশনে কর্ণাটকের ঘটনার কথা উঠে আসে। তারপরই এর তীব্র নিন্দা করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘কর্ণাটকের বিধায়কদের নানাভাবে অত্যাচার করা হচ্ছে। তাঁদের বাধ্য করা হচ্ছে ইস্তফা দিতে। ঘোড়া কেনাবেচা চলছে। কর্ণাটকের গণতান্ত্রিক সরকারকে বিজেপি ভেঙে দেওয়ার ষড়যন্ত্র করছে। আর দিল্লী এক্ষেত্রে ষড়যন্ত্রের নগরী।’ মমতা আরও বলেন, ‘বিজেপি সব রাজ্য, সব বিধানসভা, ইনস্টিটিউশন, মিডিয়া হাউসকে দখল করতে চাইছে। সংকটে যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামো, সংকটে সংবিধান। দেশের জন্য যা খুবই ক্ষতিকারক।’ এই অবস্থায় বিজেপি বিরোধী সবাইকে একজোট হয়ে লড়ার বার্তাও দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রতিক্রিয়া পাওয়ার জন্য দিলীপ ঘোষ , বা বিপ্লব কুমার দেবকে অবশ্য পাওয়া যায়নি ।  

No comments:

Post a Comment

loading...