Monday, 22 July 2019

সরকারি চাকরি বা পয়সা থাকলেই দুটো বিয়ে করা যেতে পারে যোগীর অধীনস্ত গ্রামে

ওয়েব ডেস্ক ২২ ই জুলাই ২০১৯:যোগী আদিত্যনাথ উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী হলেও রাজ্যের যে তেমন কোনো পরিবর্তন আসেনি সেটা ভালোই বুঝতে পারা যাচ্ছে । উত্তরপ্রদেশ যেই তিমিরে ছিল সেই তিমিরেই আছে । তাদের কু প্রথা এতটুকুও কমেনি । শুনলেও অবাক লাগে , উত্তর প্রদেশের একটি গ্রাম রয়েছে যেখানে পয়সা থাকলেই দুটো বিয়ে করা যায়। এরকমই নাকি নিয়ম ।
প্রসঙ্গত উত্তরপ্রদেশের একটি জেলার নাম লখিমপুর খেরি। আর এই জেলার অন্তর্গত গ্রামের নাম ফতেপুর। সেখানে গেলেই দেখা যাবে প্রত্যেক পুরুষের দুটো থেকে তিনটে স্ত্রী রয়েছে। এই গ্রামের জনসংখ্যা ৩ হাজার। এখানে হাতে গোনা দু’‌চারজনকে বাদ দিলে প্রত্যেক পুরুষই সরকারি চাকরি করেন। তাই একটার বেশি বিয়ে করেন তাঁরা। স্থানীয় সূত্রে খবর, এই সরকারি চাকরি করা পুরুষদের দুটো করে বাড়ি আছে। একটি এই গ্রামে। অপরটি কর্মক্ষেত্রের কাছে। দু’‌জায়গাতেই একজন করে স্ত্রী রয়েছে। এমনকী এটা সবার জানা। দুই স্ত্রীও জানে এই ঘটনা। অদ্ভূত বিষয় হল এটা তাঁরা মেনেও নিয়েছেন।আরও জানা গিয়েছে, দ্বিতীয় বিয়েটি করার কারণ সম্মানরক্ষার্থে। পারিবারিক ঐতিহ্য বজায় রাখতেই এই দ্বিতীয় বিয়ে করা হয় এখানে। গ্রামে সম্মান বাড়াতেই এই দ্বিতীয় বিয়ে বলে খবর। যোগী আদিত্যনাথ এসবের খবর রাখেন তো ?

No comments:

Post a comment

loading...