Friday, 5 July 2019

এক দিকে অন্য ধর্মের লোকেদের "জয় শ্রীরাম " বলতে বাধ্য করানো হচ্ছে , আবার গীতা পড়বার জন্য মারধর করা হচ্ছে । বিজেপি কি জানে তাদের কি চাই?

ওয়েব ডেস্ক ৫ই জুলাই  ২০১৯: প্রশ্ন একটাই , বিজেপি কি গুন্ডামির রাজত্ব কায়েম করার চেস্টায় আছে ?দ্বিতীয় বারের জন্য দিল্লির মসনদে বসার সুযোগ পেয়ে বিজেপি কর্মীরা নিজেদের "হনু ' বলে মনে করছেন । জোর করে "জয় শ্রীরাম " বলানোর  চেষ্টা করা হচ্ছে সংখ্যালঘু মানুষদের দিয়ে , এতো অবধি তো বোঝা গেল ।

কিন্তু যদি কোনো সংখ্যালঘু মানুষ 'গীতা'  পড়েন তাহলে দোষের কোথায় ? এই উত্তরটাই দেওয়ার মতো কেউ নেই বিজেপির তরফ থেকে ।  একেই একজন সংখ্যালঘু ব্যক্তিকে জোর জবরদস্তি "জয় শ্রীরাম " বলতে বাধ্য করা হচ্ছে , আবার সেই মানুষই যদি ভগবত গীতা পড়তে চায় তাহলে রে রে করে উঠছেন বিজেপি কর্মীরা । সমীকরণটা ঠিক মিলছে না । প্রসঙ্গত আলিগড়ে নিজের বাড়িতে বসে হিন্দু ধর্মগ্রন্থ গীতা পড়ছিলেন দিলশের নামে এক ব্যক্তি। তখনই মুসলমান হওয়া সত্ত্বেও গীতা পড়ার ‘অপরাধে’ তাঁর ওপর হামলা চালায় কয়েকজন। পরে অভিযোগ পেয়ে এই ঘটনায় দু-জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। প্রসঙ্গত, আলিগড়ে শাহ জামাল এলাকার বাসিন্দা ৫৫ বছরের দিলশের পেশায় একজন নিরাপত্তা কর্মী। গত ৩৮ বছর ধরে তিনি নিয়মিত গীতা পড়েন বলে জানিয়েছেন। তাঁর ধর্ম যে তাঁকে অন্য ধর্মের বই পড়তে নিষেধ করে না, সে কথাও বলেন দিলশের।

No comments:

Post a Comment

loading...