Thursday, 25 July 2019

সন্দেহ হলেই গ্রেফতার , লোকসভায় বিল পাশ , অমিত বললেন নকশালদের কথা মাথায় রেখেই......

ওয়েব ডেস্ক ২৫ই জুলাই ২০১৯:স্বৈরতন্ত্র শাসনের দিকে কি একধাপ এগোলো বিজেপি সরকার ? সাধারণ মানুষের মুখে মুখে এখন এটাই প্রশ্ন । কিন্তু কেন ? প্রসঙ্গত শুধুমাত্র সন্দেহ হলেই সন্ত্রাসী তকমা দেওয়া যাবে, বিরোধীদের চরম বিরোধিতা সত্বেও লোকসভায় পাশ হয়ে গেল ‘বেআইনি কার্যকলাপ প্রতিরোধ আইন’ (ইউএপিএ)-এর সংশোধনী বিল। এই আইনে কোনো ব‍্যক্তি যদি কোনও সন্ত্রাসবাদী সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত নাও থাকে তাতেও তাঁকে সন্ত্রাসবাদী হিসেবে গণ্য করা হবে। এমনকি তাকে গ্ৰেফতারও করা যাবে। তাছাড়া এই বিল আইনে পরিনত হলে, এনআই যে কোনও রাজ্যের যে কোনও ব্যক্তির বাড়িতে যে কোনও সময় তল্লাশি চালাতে পারবে। এর জন্য সেই রাজ্য সরকারের অনুমতি নিতে হবে না। ইউএপিএ-সংশোধনীর এই ধারাগুলিতেই আপত্তি বিরোধীদের। তাদের দাবি, এই বিল আইনে পরিণত হলেই সরকারের কাছে অদম্য ক্ষমতা চলে আসবে। এর ফলে স্বৈরতন্ত্র চালু হতে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করছেন অনেকে।
এই বিল নিয়ে প্রথম থেকেই আপত্তি ছিল বিরোধীদের। বিলটি লোকসভায় পেশ হোক সেটাই চাইছিল না বিরোধী শিবির। কিন্তু, বিরোধীদের আপত্তি হেলায় উড়িয়ে দিয়ে বিলটি পেশ হয় এবং এনডিএ-র ক্ষমতাবলে পাশও হয়ে যায়। সংশোধনীতে বলা হয়েছে, সন্ত্রাসবাদী সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত না-থাকলেও কাউকে সন্ত্রাসবাদী ঘোষণা করা যাবে এবং সন্দেহের বশে যে কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারবে পুলিশ। এছাড়াও বাড়ানো হয়েছে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা এনআইএ-এর ক্ষমতাও। এই বিল আইনে পরিণত হলে এনআই যে কোনও রাজ্যের যে কোনও ব্যক্তির বাড়িতে যে কোনও সময় তল্লাশি চালাতে পারবে। এর জন্য সেই রাজ্য সরকারের অনুমতি নিতে হবে না। বিরোধীদের দাবি, এই সংশোধনী যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোতে হস্তক্ষেপ।লোকসভায় অমিত শাহ বলেছেন শহুরে নকশালদের কার্য্যকলাপ রুখতেই এই পদক্ষেপ । এটাও মনে রাখা দরকার শহুরে নকশালরা পরিস্তিতি বুঝে কখনো কমুনিস্টপার্টির মধ্যেও ঢুকে যান পিঠ বাঁচাবার জন্য ।

No comments:

Post a comment

loading...