Saturday, 17 August 2019

এবার প্রধানমন্ত্রীর নতুন সংযোজন ‘‌চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ’‌

ওয়েব ডেস্ক ১৭ই অগাস্ট  ২০১৯: একের পর এক দুঃসাহসিক সিদ্ধান্ত নিয়ে চলেছেন নরেন্দ্র মোদী ।বামেরা মুখে না বললেও ৩৭০ ধারা তারাও কোনোদিন মেনে নিতে পারেননি ।কিন্তু ভোট রাজনীতিতে নিজেদের সংগঠন অটুট রাখতে দেশের স্বার্থ বলিদান দিতেও পিছপা হননি ।এখন মুখে কুলুপ এঁটেছেন ।আর মোদীজি সেনা, বায়ুসেনা, নৌসেনার তিন প্রধানের কাজ তদারকি করতে নিয়ে আসছেন  নতুন পদ ‘‌চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ’‌ বা স্টাফ। তিন বাহিনীর সঙ্গে সামঞ্জস্য গড়তে, পারস্পরিক মতবিরোধ এড়াতেই নাকি এই সিদ্ধান্ত। ৭৩তম স্বাধীনতা দিবসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এই ঘোষনাই করেছেন  । প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন সেনাবাহিনী এ দেশের গর্ব। তবে পরিবর্তিত সময়ের প্রেক্ষিতে পারস্পরিক বোঝাপড়া আরও বাড়ানো দরকার। সেই কাজই করবেন চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ। তাঁর কথায় ‘‌এতে বাহিনী আরও শক্তিশালী হবে।’‌
স্বাধীনতা ইস্তক জম্মু–‌কাশ্মীরে বলবৎ ৩৭০ এবং ৩৫(‌এ)‌ ধারা বিলোপ হয়েছে সদ্য। পৃথক কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ঘোষণা হয়েছে জম্মু–‌কাশ্মীর এবং লাদাখ। দেশের প্রথম স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সর্দার বল্লভভাইয়ের স্বপ্নপূরণের লক্ষ্যে এটা একটা বড় ধাপ, জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। বলেছেন, ‘‌আজ এক দেশ, এক সংবিধান। আমরা প্যাটেলের এক ভারত, শ্রেষ্ঠ ভারতের স্বপ্নপূরণে দায়বদ্ধ।’‌ নাম না করে বিরোধীদের উদ্দেশে তাঁর ঠেস, ‘‌আমাদের সরকার সমস্যা লালনও করে না, তা ফেলেও রাখে না।’‌ জম্মু–‌কাশ্মীরের বিশেষ ক্ষমতা খর্ব হওয়ার পর জাতির উদ্দেশে ভাষণে অঞ্চলকে নতুন করে ঢেলে সাজানোর প্রতিশ্রুতি দিলেও, স্বাধীনতা দিবসে সেই প্রসঙ্গে কোনও ঘোষণা হয়নি।   
তিনি তো অনেক কিছুই বললেন আর মানুষই তার কথাই শুনলেন , এতে নোটবন্দির মতো কিছু রয়েছে কি না সেটা পরে জানা যাবে ।

No comments:

Post a Comment

loading...