Monday, 2 September 2019

আলোরানী সরকারের নেতৃত্বে বীজপুরে ব্যর্থ হল বিজেপির সন্ত্রাসী বনধ

ওয়েব ডেস্ক ২রা  সেপ্টেম্বর ২০১৯: লোকসভা ভোটে  বিজেপি, এই রাজ্যে  ভালো ফল করার জন্য বিজেপির কিছু উৎশৃঙ্খল কর্মী একের পর এক তৃণমূলের পার্টি অফিস গুলো দখল করে নেয় ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রের শ্যামনগর, জগদ্দল এলাকার। তৃণমূল তথা সরকারের মন্ত্রী আহ্বানেও কোনো কর্ণপাত করেনি বিজেপি কর্মীরা ।
গতকাল তৃণমূল তাদের পার্টি অফিস পুনরুদ্ধারে নামে , এবং হটাৎ করে অর্জুন সিংহ সেখানে উপস্থিত হওয়াতেই বিজেপির নিজেদের গোষ্ঠীকোন্দলের জেরেই হোক বা অন্য কোনো অভ্যন্তরীন কারণে অর্জুন সিংহের গাড়ি ভাংচুর করা হয় , যার পরিপ্রেক্ষিতে বিজেপি আজ বারাকপুরে লোকসভা কেন্দ্রে ১২ ঘন্টার বনধ ডাকে । বনধে কোনো সারা মানুষ না দিলেও জগদ্দল শ্যামনগর এলাকায় বিজেপি কর্মীরা জোরজবরদস্তি দোকান পাট অটো বন্ধ করার চেষ্টা করেন । আর কাঁচরাপাড়ায়  বিজেপির মুকুল রায় ও তার পুত্র সুভরাংশু রায়ের বাসস্থান হলেও তৃণমূলের  লড়াকু  নেত্রী  আলোরাণী সরকারের দাপটে বীজপুরে ১ শতাংশও বিজেপি ডাকা ১২ ঘন্টার বনধের কোনো প্রভাব পড়েনি । পরিস্তিতি একেবারে স্বাভাবিক ছিল । তার নেতৃত্বে তৃণমূল এলাকায় মিছিল করে এবং সাধারণ মানুষ স্বতঃফূর্ত ভাবে আলোরাণী সরকারের পায়ে পা মেলান । তার নেতৃত্বে একবারের জন্যেও মনে হয়নি বিজেপি কোনো বনধ ডেকেছিল আজকে ।  আলোরাণী সরকারের জন্যই আজ কর্মনাশা আর একটা বনধ কার্যত রুখে দেওয়া গেছে এবং সাধারণ ব্যবসাদাররা একটা বৃহৎ লোকসানের হাত থেকে বেঁচেছে । 

No comments:

Post a Comment

loading...