Sunday, 24 November 2019

ফডণবীসের শপথ শেষ হওয়ার সাথে সাথেই এনসিপির ৫ সংসদ বেপাত্তা

ওয়েব ডেস্ক ২৪শে নভেম্বর ২০১৯: চমকের পর চমক নিয়ে হাজির হচ্ছে মহারাষ্ট্র। সরকার গঠনের আগে পর্যন্ত ঠিক ছিল, মহারাষ্ট্রে সরকার গড়বে শিবসেনা-এনসিপি। শনিবার সেই হিসেব পাল্টে সরকার গড়ল বিজেপি-এনসিপি একাংশ। এ নিয়ে ভাঙনের সুর বাজতে শুরু করেছে এনসিপিতে। দলের প্রতি কতজনের আনুগত্য আছে তা জানার জন্য সভা ডাকেন এনসিপি প্রধান শারদ পাওয়ার। কিন্তু, সভা থেকে নিখোঁজ হয়ে যান দলের ছয়জন সংসদ সদস্য।এনসিপি প্রধান শারদ পাওয়ারের ভাইপো  অজিত পাওয়ারের সমর্থনে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে বিজেপি নেতা দেবেন্দ্র ফারনাভিস দ্বিতীয়বার শপথ গ্রহণের পর ওয়াই বি চহ্বন সভাগৃহে সর্বদলীয় বৈঠক ডেকেছিলেন শারদ পাওয়ার। দলের প্রতি কতজন অনুগত তা খতিয়ে দেখতেই এই সভা ডাকেন এনসিপি প্রধান। সেখানেই দলের ছয়জন সংসদ সদস্যের হঠাৎ নিখোঁজ হওয়ার খবর আসে। পরে বৈঠকের মাঝে আচমকা উপস্থিত হন দলের প্রথম সারির নেতা ধনঞ্জয় মুণ্ডে।
বাকি পাঁচজনের এখনও কোনও খোঁজ পাওয়া যায়নি। ধারণা করা হচ্ছে, ধনঞ্জয় মুণ্ডেও অজিত পাওয়ারের সঙ্গে দলবদলের খেলায় ছিলেন।এনসিপির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ছয় বিধায়কের মধ্যে রয়েছেন অজিত পাওয়ারও। তবে খুব শীঘ্রই তারা দলে ফিরে আসবেন। এ প্রসঙ্গে আরও খবর, এনসিপির ওই পাঁচ বিদ্রোহী সংসদ সদস্যকে সম্ভবত দিল্লিতে নিয়ে এসেছে বিজেপি।অনেকে বলছেন, পাঁচ নয় মোট নয় জনকে উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে দিল্লিতে। এরা হলেন দৌলত দারোদা, নড়হরি জিরোয়ার, সুনীল ভূসার, দিলীপ বাঁকার, অনিল পাতিল, নিতিন পাওয়ার, সুনীল শেলকে, বাবাসাহেব পাতিল এবং সঞ্জয় বনসন। তাদের ফেরাতে মুম্বাই বিমানবন্দরে পৌঁছে যান দলের অন্য কয়েকজন সংসদ সদস্য। কিন্তু খালি হাতে ফিরে আসেন তারা। পরে শিবসেনা সংসদ সদস্যরা ফিরে আসেন এনসিপি সদর দফতরে। তাদের সঙ্গে একজন নিখোঁজ দলীয় নেতাও ছিলেন।

No comments:

Post a Comment

loading...