Wednesday, 20 November 2019

"কাশ্মীর আমাদের" বলে প্রচার চালাচ্ছে পাকিস্তান, দিল্লি নীরব দর্শক

ওয়েব ডেস্ক ২০ শে নভেম্বর ২০১৯: ইমরান খান ক্রিকেট জীবনে ধুরন্ধর বুদ্ধি সম্পন্ন অধিনায়ক ছিলেন । এ বিষয়টা উপেক্ষা করার কোনো উপায় নেই । কিন্তু দিল্লি সেটা উপেক্ষা করল কি করে ?যদি নাই করে থাকে তাহলে পাকিস্তানের নারওয়াল জেলার কর্তারপুরে গুরুদ্বার বাবা সাহিবে এতো শিখ সম্প্রদায়ের লোকের সামনে "কাশ্মীর ইস পাকিস্তান" নামক পোস্টার ভারতীয় শরণার্থীদের সামনে দেয় কি করে ? দিল্লি টি বিন্দু বিসর্গও এর আঁচ করতে পারেনি ? যদি উত্তরটা "না" হয় তাহলে এটা কেন্দ্রীয় সরকারের ব্যর্থতা । প্রসঙ্গত, সম্প্রতি শিখ তীর্থযাত্রীদের কথা মাথায় রেখে কর্তারপুর করিডর খুলে দিয়েছে পাকিস্তান।
আর এতে পাঞ্জাবের শিখদের মন জয় করে নিয়েছেন ইমরান খান। শিখরা যাতে নিরাপদে পাকিস্তানের নারওয়াল জেলার কর্তারপুরে গুরুদ্বার বাবা সাহিবে সহজে যেতে পারেন সেজন্য সব ব্যবস্থা করে দিয়েছে। সেখানেই জীবনের শেষ কয়েকটা বছর কাটিয়েছিলেন শিখ ধর্মের প্রবর্তক গুরু নানক দেব। যা শিখদের কাছে অত‌্যন্ত পবিত্র তীর্থক্ষেত্রে।এদিকে এই তীর্থযাত্রাদের সামনে পাকিস্তান কাশ্মীরে ভারতীয় নানা  অপকর্ম তুলে ধরে বিভিন্ন প্রচার কার্যক্রম পরিচালনা করছে। কর্তারপুর গুরুদ্বারের খুব কাছেই প্রচুর পোস্টার লাগিয়েছে ইসলামাবাদ। তাতে ‘কাশ্মীর ইজ পাকিস্তান’, ‘প্রাইড অফ নেশন…পাকিস্তান আর্মড ফোর্সেস’-নানা ধরণের স্লোগান লেখা রয়েছে। যাতে সাধারণ মানুষ বুঝতে পারে ভারত  সীমালঙ্গন করছে।উল্লেখ্য, শিখ ধর্মগুরু গুরু নানকের ৫৫০তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে এই করিডেরের উদ্বোধন করা হয়। এদিন উদ্বোধনের পরপরই পাকিস্তানের পঞ্জাব প্রদেশের নরোয়াল জেলায় গুরুদ্বার দরবার সাহিবের উদ্দেশে রওনা দেয় ৫০০ জন দর্শণার্থীর একটি দল।কিন্তু বছরে কতবার পাকিস্তানী সৈন্য "সিস ফায়ার " উলঙ্ঘন করছে সে বিষয়ে একটা শব্দও ব্যবহার করেনি পাকিস্তান । মানুষের অভিমত অবিলম্বে ভারত সরকারের উচিত এ নিয়ে একটা বিহিত করার । 

No comments:

Post a Comment

loading...