Monday, 25 November 2019

পরম বন্ধু শেখ হাসিনাকে দায়সারা অভ্যর্থনা কেন্দ্রের , এটাও কি কাম্য ?

ওয়েব ডেস্ক ২৫শে নভেম্বর ২০১৯: সম্প্রতি স্বল্পতম সময়ের ব্যবধানে দুই বার ভারত সফর করলেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে এ বছর দিল্লির পর সদ্য কলকাতা সফরেও ভারতের পরম মিত্র বাংলাদেশের সফলতম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভ্যর্থনা প্রদানে ছিল দায়সারা ভাব।
সদ্য কলকাতা সফরে দিল্লির মতই বিমান বন্দরে শেখ হাসিনাকে অভ্যর্থনা প্রদানে ছিল 'শীতলতা'। বারংবার তার প্রতি কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারের এই আচরণ আমলে নিয়ে শক্ত ভাষায় এর সমালোচনা করেছে দেশটির কূটনৈতিক বোদ্ধারা।
প্রতিবেশী বলয়ে ভারতের ‘পরম মিত্র’ বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানাতে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নিজে বা কোনো সিনিয়র ক্যাবিনেট মন্ত্রী উপস্থিত থাকবেন— এটাই ছিল প্রত্যাশা। প্রথমবার জিতে আসা কোনো প্রতিমন্ত্রী নন।
তবে কেন এমন উদাসীন আচরণ, সে বিষয়ে সরকারিভাবে মুখ খুলতে চাইছে না সাউথ ব্লক। ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, ঘরোয়া রাজনীতির বাধ্যবাধকতাই কারণ। একদিকে তারা যখন দেশজুড়ে এনআরসি করে বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের দেশছাড়া করার কথা বলছেন, সেই সময়ে এনআরসি-বিরোধী মমতা ব্যানার্জিকে পাশে নিয়ে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানানোর বিষয়টিকে এড়িয়ে যেতেই চেয়েছেন নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহরা। 

No comments:

Post a Comment

loading...