Friday, 29 November 2019

নারী সহকর্মীকে সঙ্গে নিয়ে দেদার নাগিন নাচ , পরিণামে বরখাস্ত শিক্ষক

ওয়েব ডেস্ক ২৯শে নভেম্বর ২০১৯: কথায় আছে ফুর্তির প্রাণ গড়ের মাঠ।  কিন্তু এখানে ছিল ফুর্তির প্রাণ ট্রেনিঙের স্থান ।ট্রেনিং  সেশনের বিরতিতে নাগিন নাচ নেচে ফেঁসে গেছেন তিন শিক্ষক। এদের একজন হয়েছেন বরখাস্ত, দু’জনকে শোকজ নোটিশ দেয়া হয়েছে। জবাবে কর্তৃপক্ষ সন্তুষ্ট না হলে তারাও বরখাস্ত হতে পারেন।
শিক্ষকদের ট্রেনিং চলাকালে এমন নাগিন ড্যান্সের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। এ নিয়ে প্রথমে অনেকেই হতবাক হলেও পরে বিষয়টি নিয়ে হাস্যরসে মেতেছেন নেটিজেনরা। ভিডিওতে দেখা গেছে, শ্রেণিকক্ষের মেঝেতে নাগিন হয়ে ফণা তুলছেন এক নারী শিক্ষক। হাতের রুমালকে বীণ বানিয়ে বাজানোর অভিনয় করছেন অপর এক শিক্ষক। তার বীণে নাচছেন সেই শিক্ষিকা। ছোবল দিতে উদ্যত হয়েছেন। পুরো বিষয়টি উপভোগ করছেন অন্যান্য।জানা গেছে, ঘটনাটি ঘটেছে গত বুধবার ভারতের রাজস্থানের জালোরে একটি টিচার্স ট্রেনিং সেন্টারে।বুধবার জালোরে শিক্ষকদের একটি ট্রেনিং চলাকালে বিরতিতে একঘেয়েমি দূর করতে নাগিন ড্যান্সে অংশ নেন তিন শিক্ষক। তাদের মধ্যে একজন ছিলেন ওই ট্রেনিংয়ের প্রধান ট্রেনার।আর সেই ভিডিও ভাইরাল হওয়াই কাল হয়ে দাঁড়ালো ওই তিন শিক্ষকের ওপর। আচরণবিধি ভঙ্গের অভিযোগে ট্রেনারকে বরখাস্ত করেছে জালোরের জেলা শিক্ষা অধিদফতর।

এ বিষয়ে জালোরের জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা অশোক রোয়েশ্বল বলেন, যে শিক্ষক নাগিন ড্যান্সের আয়োজনে ছিলেন, আমরা তাকে বরখাস্ত করেছি। নাচে অংশ নেয়া অন্য দুই শিক্ষককে শোকজ লেটার দিয়েছি। তাদেরকে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে।

অন্য দুজনকে বরখাস্ত না করে সতর্ক করা হলো কেন প্রশ্নে তিনি ভারতীয় ওই গণমাধ্যমকে জানান, ওই দুজন একেবারেই নতুন। হয়তো নিয়ম ঠিকমতো জানেন না। তাই তাদের সুযোগ দেয়া হচ্ছে। নাচে কোনো ক্ষতি নেই, কিন্তু আচরণবিধি তো মানা উচিত। একজন ট্রেনার এমনটা করলে কীভাবে ট্রেনিং চলবে? 

No comments:

Post a Comment

loading...