Wednesday, 27 November 2019

সোনিয়া খুব ভালো করেই জানে বিজেপিকে উৎখাত করতে গেলে মমতাকে ছাড়া হবেনা

ওয়েব ডেস্ক ২৭শে নভেম্বর ২০১৯:টান টান উত্তেজনার মধ্যেই মহারাষ্ট্রের রাজনীতিতে ড্রামা শেষ হল । তবে এতো সবের মধ্যেও , যখন নাটকের ক্লাইম্যাক্স একরকম চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছিল যে শিবসেনা , কংগ্রেস, আর এনসিপি সরকার গঠন করছে , ঠিক ওই সময় সোনিয়া গান্ধী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ফোনে করে আমন্ত্রণ জানায় শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্য । সোনিয়া খুব ভালো করেই জানে বিজেপিকে রুখতে গেলে মমতাকে লাগবেই , ওনাকে ছাড়া হবেনা ।
 একমাত্র মমতায় আছেন যাকে বিজেপি সমীহ করে চলে । বিজেপিকে সমানে সমানে টক্কর একমাত্র মমতাই নিতে পারে আর কেউ নয় । কিন্তু কংগ্রেস যদি সিপিএমের সঙ্গ না ছাড়ে তাহলে কি মমতা সোনিয়া গান্ধীর পাশে দাঁড়াবেন ? না দাঁড়ানোটা উচিত হবে ? সিপিএম এমনই একটা দল যারা মানুষের সমস্যা সুরাহার বদলে সেটা কেঁচিয়ে দিতে বিশেষজ্ঞ । কম্যুনিস্টরা দেখায় তারা মানুষের সমস্যার সমাধানে খুবই আগ্রহী এ নিয়ে তারা পথে নামতেও দ্বিধা করেননা , আর করবেই বা কেন ?পথে মানুষদের না নিয়ে নামলে সংগঠন যে মজবুত হবেনা । তার পর কাজটা যখন হয়ে আসবে ঠিক তখনি  সেটাকে পেছাতে থাকবে আরও দাবি দাওয়া যোগ করে যাতে ব্যাপারটা কেঁচিয়ে যায় , পরিণামে সমস্যা সমস্যাই থেকে যায় , মানুষের কোনো সুরাহা হয়না । যাই হোক সেটা সময় বলবে রাজনীতির সমীকরণ কোন দিকে যাবে ।প্রসঙ্গত শপথ নেবেন শিবসেনার সুপ্রিমো উদ্ধব ঠাকরে। শপথ নেবেন দুই উপ–মুখ্যমন্ত্রীও। আর মমতার উপস্থিতি সেখানে দীর্ঘ লড়াইয়ের বৃত্তকে পূর্ণ করবে। মারাঠা স্ট্রংম্যান শারদ পাওয়ারও অবশ্য তাই চান।

No comments:

Post a Comment

loading...