Friday, 8 November 2019

অযোধ্যা নিয়ে সর্বোচ্চ আদালতের রায় শুধু সময়ের অপেক্ষা , শান্তি বজায় রাখাটাই প্রশাসনের লক্ষ্য

ওয়েব ডেস্ক ৮ই নভেম্বর ২০১৯: বহু প্রতীক্ষার পর অযোধ্যার রায় আসতে চলেছে আর কিছু দিনের মধ্যেই । উৎকণ্ঠার দিন শেষ হতে চলেছে । এই নিয়ে প্রশ্ন বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করছে যাতে কোনো ভাবেই অশান্তির সৃষ্টি না হয় । মামলার রায় দেবেন ভারতের সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈর নেতৃত্বে গড়া ৫ সদস্যের বেঞ্চ। প্রধান বিচারপতি গগৈ ১৭ নভেম্বর অবসর নিচ্ছেন। এর আগে এই মামলার রায় দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছিল।
এই রায়ের পর বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি যাতে তৈরি না হয়, এ জন্য ভারতের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। জারি করা হয়েছে সতর্কতা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি শান্তি ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখার ওপর জোর দিয়েছেন।উত্তর প্রদেশের অযোধ্যা শহর এখন নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে ফেলা হয়েছে। গত ২০ অক্টোবর থেকে অযোধ্যা শহরে জারি রয়েছে ১৪৪ ধারা। ১০ নভেম্বর থেকে এই শহরে জারি হচ্ছে কারফিউ। এই সান্ধ্য আইন অযোধ্যা মামলার রায় ঘোষণার পর চার দিন পর্যন্ত বলবৎ থাকবে। অযোধ্যার নিরাপত্তা জোরদার করার লক্ষ্যে সেখানে মোতায়েন করা হয়েছে ৪০ কোম্পানি আধা সেনা। এতে অযোধ্যা নগরী এখন একটি দুর্গে পরিণত হয়েছে। এই ৪০ কোম্পানি আধা সেনার মধ্যে রয়েছে ১৬ কোম্পানি সিআরপিএফ ও ৬ কোম্পানি আইটিবিপি। আরও রয়েছে সিআইএসএফ এবং এসএসবির আধা সেনা। উত্তর প্রদেশের ধর্মীয় জায়গাগুলোতে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।সাধারণ মানুষের একান্ত আর্তনাদ রায় যাই হোক না কেন অশান্তির সৃষ্টি যেন না হয় ।

No comments:

Post a Comment

loading...