Monday, 9 December 2019

দেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রীকেই সব চেয়ে বড় ধর্ষক হিসেবে দাবি করলেন সাধ্বী প্রাচী

ওয়েব ডেস্ক ৯ই ডিসেম্বর ২০১৯:  কয়েকদিন আগেই রাহুল গান্ধী দাবি করেছিলেন ভারত এখন ধর্ষণের রাজধানীতে , হয়তো তারই পাল্টা হিসেবে সাধ্বী প্রাচী ভালো মতো ফেরত দিলেন ।দেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহেরুকে  সবচেয়ে বড় ধর্ষক বলে দাবি করলেন হিন্দু নেত্রী সাধ্বী প্রাচী । দেশের বিভিন্ন প্রান্তে নারী ধর্ষণ –খুন বেড়েই চলেছে । বিশেষ করে বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলিতে নারী নির্যাতন অনেক বেড়েছে । সেই অবস্থায় রুচিহীন মন্তব্য করলেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদ নেত্রী সাধ্বী প্রাচী ।হায়দরাবাদ, উন্নাও–সহ দেশ জুড়ে একের পর এক ধর্ষণ এবং মহিলাদের বিরুদ্ধে ক্রমবর্ধমান অপরাধের ঘটনা নিয়ে সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকারকে একহাত নেন কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গাঁধী। ভারত এখন গোটা বিশ্বে ‘ধর্ষণের রাজধানী’ বলে পরিচিত হচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
রাহুলের সেই মন্তব্যের সামালোচনা করতে গিয়েই রবিবার মাত্রা ছাড়ান সাধ্বী প্রাচী। সংবাদমাধ্যমের সামনে তিনি বলেন, ‘‘ভারতকে ধর্ষণের রাজধানী বলে বেড়াচ্ছেন রাহুল গাঁধী। ওঁর লজ্জা হওয়া উচিত। নেহরুই তো সবচেয়ে বড় ধর্ষক ছিলেন।’’
তবে শুধুমাত্র নেহরুকে ধর্ষক বলেই থামেননি সাধ্বী প্রাচী। তাঁর দাবি, ‘‘নেহরু–গাঁধী পরিবারের হাত ধরেই ভারতে সন্ত্রাসবাদ, নকশালবাদ এবং ধর্ষণের আমদানি হায়েছে। আজ গোটা দেশ তার পরিণাম ভুগছে।’’
সাধ্বী প্রাচীর এই মন্তব্য নিয়ে বিজেপি বা বিশ্ব হিন্দু পরিষদের তরফে এখনও কোনও মন্তব্য করা হয়নি। তবে দেশজুড়ে শোরগোল পড়ে গেছে। দেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহেরু সবচেয়ে বড় ধর্ষক ! দাবি করলেন হিন্দু নেত্রী সাধ্বী প্রাচী । দেশের বিভিন্ন প্রান্তে নারী ধর্ষণ –খুন বেড়েই চলেছে । বিশেষ করে বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলিতে নারী নির্যাতন অনেক বেড়েছে । সেই অবস্থায় রুচিহীন মন্তব্য করলেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদ নেত্রী সাধ্বী প্রাচী ।
হায়দরাবাদ, উন্নাও–সহ দেশ জুড়ে একের পর এক ধর্ষণ এবং মহিলাদের বিরুদ্ধে ক্রমবর্ধমান অপরাধের ঘটনা নিয়ে সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকারকে একহাত নেন কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গাঁধী। ভারত এখন গোটা বিশ্বে ‘ধর্ষণের রাজধানী’ বলে পরিচিত হচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। 

No comments:

Post a comment

loading...