Monday, 9 December 2019

ব্যাপক বিরোধিতা অভিষেক ব্যানার্জীর, তবুও নাগরিক সংশোধনী বিল পাশ হয়ে গেল সংসদে

ওয়েব ডেস্ক ৯ই ডিসেম্বর ২০১৯: সংসদে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় আজ অনর্গল ইংরেজিতে নাগরিক সংশোধনী বিলের বিরোধিতা করে গেলেন , কিন্তু বিজেপি শেষ পর্যন্ত নাগরিক সংশোধনী বিল পাশ করিয়েই নিয়ে গেল , শুনলনা কোনো বিরোধীদের কথাই। তবে যেভাবে তৃণমূলের অভিষেক ব্যানার্জী কেন্দ্রীয় সরকারকে আক্রমণ করেছেন তা মন ছুঁয়ে গেছে কোটি কোটি ভারতবাসীর । প্রসঙ্গত সোমবার নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল-২০১৯ এর পক্ষে রায় দিল  লোকসভা। এদিন  কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বিলটি পেশ করার পর তা ২৯৩-৮২ ভোটের ব্যবধানে পাস হয়।
শুরুতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেন, বিলটি সংখ্যালঘুদের বিপক্ষে নয়। এদিকে বিলটিকে বিজেপির বিভাজনের রাজনীতির কৌশল বলে কঠোর সমালোচনা করেন বিরোধীরা। লোকসভার কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরী বলেন, প্রশাসন উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে মুসলমানদের নিশানা করছে। হট্টগোলের মধ্যেই বিরোধীদের উদ্দেশ্যে অমিত শাহ বলেন, আমি সব প্রশ্নের উত্তর দেব। কিন্তু আপনারা ওয়াকআউট করবেন না।
বিলের বিরোধিতায় তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায় বলেন, ৩৭০ ধারা বিলোপের সময় বলা হয়েছিল- এক দেশ-এক সংবিধান। কিন্তু নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলে আসাম, মেঘালয়, মিজোরাম, ত্রিপুরার অনেক স্থানকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। এই বিল বিভাজনের উদ্দেশ্য করা হচ্ছে, যা সংবিধানের ১৪ নম্বর ধারার পরিপন্থী। জবাবে অমিত শাহ বলেন, আজ আমাদের কেন বিল প্রয়োজন হচ্ছে? কারণ স্বাধীনতার পর ধর্মের ভিত্তিতে দেশভাগ না করলে আজ আমাদের এই বিল আনতে হত না। কংগ্রেস আসলে দেশভাগ করেছিল ধর্মের ভিত্তিতে। এতো সবের পরেও শেষ হাসি হাসল
বিজেপি শিবিরই । সংখ্যার জোরে ।

No comments:

Post a comment

loading...