Saturday, 25 January 2020

ভোটে জেতার জন্য কতই না কৌশল অবলম্বন করতে পারেন অমিত শাহ

ওয়েব ডেস্ক ২৫ শে  জানুয়ারী  ২০২০ : দিল্লি বিধানসভার ভোট ৮ ফেব্রুয়ারি। গণনা ১১ ফেব্রুয়ারি। রাজ্যের শাসক দল আম আদমি পার্টির মোকাবিলায় বিজেপির শীর্ষ নেতারা প্রচারের তীব্রতা বাড়াচ্ছেন। পুরোদমে আসরে নেমে পড়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। একের পর এক রোড শো ও জনসভায় তাঁর গলায় একটাই সুর। তিনি বলছেন, রাজধানীর মানুষকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে তাঁরা পাকিস্তানের মদদদার হবেন না ভারতের হাত শক্ত করবেন।
তাঁর কথার এই সুর টেনে বিজেপির প্রার্থীরা সরাসরি বলতে শুরু করেছেন, ৮ ফেব্রুয়ারির লড়াইটা হতে চলেছে ভারত বনাম পাকিস্তানের যুদ্ধ।পাকিস্তানকে সরাসরি টেনে আনার কাজটা শুরু করেছেন অমিত শাহই। বৃহস্পতি ও শুক্রবার রাজধানীতে একাধিক জনসভা ও রোড শোয়ে তিনি কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল ও কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীকে। শাহ তাঁর ভাষণে বলছেন, ‘আমরা যাই করি না কেন ওঁরা তার বিরোধিতা করেন। ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল, রাম মন্দির তৈরির উদ্যোগ, তিন তালাক অবৈধ করা, নাগরিকত্ব আইনের সংশোধন—যাই আমরা করছি, ওঁরা বিরোধিতা করছেন।’ শাহর কথায়, ‘রাহুল গান্ধী আজ যা বলছেন পরক্ষণেই তা আওড়াচ্ছেন কেজরিওয়াল এবং পরের দিন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর কণ্ঠে শোনা যাচ্ছে সেই এক কথা।’ অমিত শাহর কথায়, ‘এঁদের হাতে দিল্লি কখনো সুরক্ষিত থাকতে পারে না।’

No comments:

Post a comment

loading...